সেমিফাইনালের মহারণে প্রতিশোধ নাকি পুনরাবৃত্তি

টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম সেমিফাইনাল আজ বুধবার। প্রথম সেমির মহারণে মুখোমুখি হচ্ছে বিশ্ব ক্রিকেটের দুই পরাশক্তি ইংল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ড। ইংল্যান্ডের এর আগে আরও দুবার ফাইনালে উঠার অভিজ্ঞতা রয়েছে। সে অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে তৃতীয়বারের মতো ফাইনালে উঠার লক্ষ্য তাদের।

অপরদিকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের ফাইনালের দেখা কখনোই পায়নি নিউজিল্যান্ড। আগের দুইবারই ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের কাছে হেরে সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিতে হয়েছে কিউইদের। তাই আগের দুইবারের প্রতিশোধ নিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনালের মঞ্চে উঠতে মরিয়া নিউজিল্যান্ড।

আবুধাবির জায়েদ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় শুরু হবে ইংল্যান্ড-নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম সেমিফাইনাল।

আরও পড়ুন: খোলা চিঠি—ক্রিকেটার নাসিরকে কী লিখেছেন সাবেক প্রেমিকা

২০১০ সালে প্রথমবারের মতো ফাইনালে উঠে ইংলিশরা। সেবার অস্ট্রেলিয়াকে ৭ উইকেটে হারিয়ে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের শিরোপা জিতে নেয় ইংল্যান্ড। এরপর ২০১৬ সালে আবারও ফাইনাল খেলে ইংল্যান্ড। কিন্তু শেষ ওভারের এক ঝড়ে শিরোপা বঞ্চিত হয় তারা। শেষ ওভারে ওয়েস্ট ইন্ডিজের কালোর্স ব্র্যার্থওয়েটের ঝড়ে (৪ ছক্কায়) ফাইনালে ৪ উইকেটে পরাজিত হয় ইংল্যান্ড।

Thai Food

অন্যদিকে ২০০৭ সালের প্রথম আসরেই সেমিফাইনাল খেলে নিউজিল্যান্ড। কিন্তু শেষ চারে পাকিস্তানের কাছে ৬ উইকেটে ম্যাচ হারে তারা। ফলে ফাইনাল খেলার আশা ভঙ্গ হয় কিউইদের। এরপর পরের চার বিশ্বকাপে দ্বিতীয় রাউন্ড থেকে বিদায় নেয়া নিউজিল্যান্ড ২০১৬ সালে আবারো সেমিফাইনালে ওঠে। সেবার ইংল্যান্ডের কাছে ৭ উইকেটে হেরে ফাইনাল খেলার স্বপ্ন ভঙ্গ হয় ব্ল্যাক ক্যাপসদের।

শুধু টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ নয়, ২০১৯ সালের ওয়ানডে বিশ্বকাপের ফাইনালেও ইংল্যান্ডের কাছে হেরে শিরোপাবঞ্চিত হয় কিউইরা। তাই এবার নিউজিল্যান্ডের সামনে সুযোগ এসেছে ২০১৬ ও ২০১৯ সালের প্রতিশোধ নেওয়ার।

আরও পড়ুন: দুই ধাপ নামল বাংলাদেশ, আরও পেছানোর শঙ্কা

তবে প্রতিশোধের চাইতে, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে প্রথমবারের মতো ফাইনালের দিকে আপাতত চোখ নিউজিল্যান্ডের। দলের ওপেনার মার্টিন গাপটিল বলেন, আমরা ফাইনাল খেলতে চাই। তাই সেমিফাইনাল নিয়েই বেশি ভাবছি। ইংল্যান্ডকে হারিয়ে প্রথমবারের মতো ফাইনালের টিকিট চাই আমাদের। তবে সেই স্বপ্ন সহজে পূরণ হবে না। ইংল্যান্ড খুবই শক্তিশালী দল। তাদের আটকাতে হলে সেরা ক্রিকেটই খেলতে হবে।

তবে ছেড়ে কথা বলবে না ইংল্যান্ড। দলের মারকুটে ব্যাটসম্যান মালান বলেন, আমি মনে করি, আমরা যেভাবে খেলছি, এভাবে খেলতে পারলে, সেমিফাইনালেও জয় অসম্ভব কিছু না। নিউজিল্যান্ড খুবই ভালো দল। তাদের বিপক্ষে পরিকল্পনা ছাড়া জয় পাওয়া কঠিন হবে। আমরা সেমির জন্য নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সব পরিকল্পনা তৈরি করেছি। মাঠে সেগুলো বাস্তবায়ন করতে হবে।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm