‘গাছের সঙ্গে নিষ্ঠুরতা’—পেরেক ঠুকে সিআরবিতে ‘পরিবেশ’ আন্দোলন সুজনের

অদ্ভুতুরে কাণ্ডে হতবাক পরিবেশপ্রেমীরা

হঠাৎ সিআরবিতে গাছে গাছে অজস্র পেরেক। গাছের বুকে বড় বড় এসব পেরেক ঠুকে ঝুলানো হয়েছে অসংখ্য মাটির পাতিল। বানানো হয়েছে পাখির বাসা।

গাছের বুকে পেরেক ঠুকে চলছে ‘পরিবেশ রক্ষা আন্দোলন’! পরিবেশ রক্ষার নামে এমন নিষ্ঠুরতায় কাঁদছে সিআরবির শতবর্ষী গাছ।

নগরের ফুসফুস খ্যাত সিআরবিতে হাসপাতাল নির্মাণবিরোধী আন্দোলনে ঘটেছে এমন অদ্ভুতুড়ে কাণ্ড। পরিবেশ রক্ষার নামে গাছের সঙ্গে এমন নিষ্ঠুরতায় হতবাক পরিবেশপ্রেমীরা।

আরও পড়ুন: চসিক ‘প্রশাসক’ সুজনের অনিয়মের ‘খোঁজ’—প্রতিবেদন ১৫ দিনের মধ্যেই

সিআরবির সবুজ প্রকৃতি বাঁচাতে এবং পাখিদের নিরাপদ আবাসস্থল গড়ে তুলতে পাখির বাসা স্থাপনের উদ্যোগ নেয় আওয়ামী লীগ নেতা খোরশেদ আলম সুজনের নেতৃত্বাধীন সংগঠন নাগরিক উদ্যোগ।

এ উদ্যোগে সিরআরবির শতবর্ষী গাছের শাখায় পেরেক ঠুকে ঝুলানো হয়েছে পাখির বাসা। বুধবার (১ সেপ্টেম্বর) খোরশেদ আলম সুজন নিজেই এ কর্মসূচির উদ্বোধন করেন৷

পরিবেশ রক্ষার নামে গাছে পেরেক ঠুকার মতো নিষ্ঠুরতা নিয়ে সাধারণ মানুষের মধ্যেও মিশ্র প্রতিক্রিয়া শুরু হয়েছে৷ তাদের মতে, যারা পরিবেশ রক্ষা আন্দোলন করছেন তাদেরতো পরিবেশের জ্ঞান দরকার। কেবল আলোচনায় আসতেই আন্দোলনে নামমে এমনটি করা হয়েছে।

উদ্ভিদবিজ্ঞান বলছে, পেরেক ঠুকলে গাছের জীবনীশক্তি নষ্ট হয়ে যায়। কারণ গাছ শেকড়ের মাধ্যমে খাদ্য গ্রহণ করে। পেরেক ঠুকলে খাবার সংগ্রহে বাধা তৈরি হয়ে গাছের ওই অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তা দিয়ে ব্যাকটেরিয়া ও অণুজীব ঢোকে। এতে ধীরে ধীরে গাছ মারা যায়।

আরও পড়ুন: সিআরবি ‘আন্দোলনের’—আওয়ামী লীগ ‘নেতাদের’ পদত্যাগ চান মাহতাব উদ্দিন

এ বিষয়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্ভিদবিদ্যা বিভাগের অধ্যাপক মো. সালাউদ্দিন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, গাছে পেরেক ঠুকার কারণে শেকড় থেকে পানি ও খনিজ লবণ পরিবহন বাধাগ্রস্ত হয়। এতে গাছের খাদ্য বন্ধ হয়ে বৃদ্ধি কমে যায়৷ ব্যাকটেরিয়া ও ছত্রাকের আক্রমণে ওই অংশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে গাছটি ধীরে ধীরে মারা যেতে পারে।

সরেজমিনে সিআরবিতে গিয়ে দেখা যায়, শতবর্ষীসহ বিভিন্ন গাছে পেরেক ঠুকে ঝুলানো হয়েছে ছোট ছোট মাটির পাতিল। পেরেকের সঙ্গে রশিতে ঝুলছে এসব পাতিল।

এ বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে নগর আওয়ামী লীগের সহসভাপতি খোরশেদ আলম সুজন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, গাছে যত কম পেরেক লাগিয়ে পাখির বাসা লাগানো যায়, সেদিকে খেয়াল রেখে কাজ করতে বলা হয়েছে। আর সুন্দর পরামর্শ দেওয়ার জন্য আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

এসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm