সরকারের আন্তরিকতা আর কৃষকের পরিশ্রমেই কৃষিতে সাফল্য : সাংসদ দিদারুল আলম

সীতাকুণ্ডের সাংসদ দিদারুল আলম বলেছেন, বাংলাদেশ এখন খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ। প্রান্তিক ও ক্ষুদ্র কৃষকদের কথা ভেবে জননেত্রী শেখ হাসিনা বর্তমানে সবজি উৎপাদনে এবং কৃষকদের উন্নয়নে নানা প্রদক্ষেপ গ্রহণ করে চলেছেন।

ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে প্রনোদনা বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। বৃহস্পতিবার (২১ এপ্রিল) উপজেলা কৃষি পুনর্বাসন বাস্তবায়ন কমিটি সীতাকুণ্ড উপজেলা মিলনায়তনে এ আয়োজন করে।

সাংসদ দিদারুল আলম বলেন, বিশ্বের মধ্যে সবজি ও মাছ উৎপাদনে এ দেশ তৃতীয়। এছাড়া ধান উৎপাদনে চতুর্থ এবং ভূট্টা ও গম উৎপাদনে সপ্তম স্থান দখল করে নিতে সক্ষম হয়েছে। সবকিছুই সম্ভব হয়েছে সরকারের আন্তরিকতা ও কৃষকদের অধিক পরিশ্রমের কারণে। কৃষক জমিতে বিভিন্ন প্রজাতির সবজি ও সোনালি ধান উৎপাদন করেছে বলে আমরা খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ।

আরও পড়ুন: যুগ পার না হতেই চলে গেল সিংহী ‘নদী’

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. শাহাদাত হোসেনের সভাপতিত্বে ও উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মো. শাহ আলমের সঞ্চালনায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান এসএম আল মামুন। স্বাগত বক্তব্য রাখেন উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মো. হাবিবুল্লাহ।

এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. তাহমিনা আরজু, উপজেলা প্রকৌশলী মো. গেলাম মোস্তফা, সহকারী কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা রতন কান্তি দত্ত, উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি শিহাব উদ্দীন ও উপসহকারী কৃষি কর্মকর্তা মিত্রা বিশ্বাস।

কৃষি কর্মকর্তা মো. হাবিবুল্লাহ বলেন, পর্যায়ক্রমে সীতাকুণ্ড পৌরসভা ও ৯টি ইউনিয়নের আড়াই হাজার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে বিনামূল্যে সাড়ে ১২ টন উফশী ধান বীজ, ২৫ টন রাসায়নিক সার এমওপি ও ৫ টন ডিএপি বিতরণ করা হবে। মূলত মৌসুমে আউশ উৎপাদন বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকার ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকদের মাঝে প্রণোদনা বিতরণ কর্মসূচির বাস্তবায়ন করে চলেছেন।

সালাউদ্দিন/এসআই

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm