সকালে ‘লাশ’ বাবা, বিকেলে স্ত্রীকে লাখ টাকা—ছেলেকে চাকরি

চকরিয়ায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মনির হোসেনের (৭০) পরিবারের পাশে দাঁড়িয়েছে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা বিভাগ।

শনিবার (২০ মে) বিকেলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) জে পি দেওয়ান নিহত মনির হোসেনের স্ত্রীর হাতে নগদ ১ লাখ টাকা তুলে দেন। এছাড়া নিহতের ছেলেকে বরইতলী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নৈশ প্রহরী হিসেবে নিয়োগ দেওয়ার ঘোষণা দেন।

এ সময় ইউএনও জেপি দেওয়ান বলেন, হারবাংয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত মনির হোসেনের পরিবারকে নগদ এক লাখ টাকা ও তার ছেলেকে ১২ হাজার টাকা বেতনে বরইতলী ইউনিয়ন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কেন্দ্রে নৈশ প্রহরীর হিসেবে নিয়োগ দেওয়া হবে।

আরও পড়ুন: চকরিয়ায় লাশ সাতকানিয়ার বাসিন্দা, বাঁচাতে গিয়ে খাদে প্রাডো

Yakub Group

জানা যায়, নিহত ব্যক্তির মনির হোসেন সাতকানিয়া পৌরসভার ৬নম্বর ওয়ার্ডের মধ্যম চরপাড়ার আবুল খায়েরের ছেলে। তিনি হারবাং ইউনিয়নের একটি মৎস্য হ্যাচারীতে ক্যাশিয়ার পদে কর্মরত ছিলেন।

প্রসঙ্গত, শনিবার (২১ মে) সকাল ১১টার দিকে চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কের চকরিয়ার হারবাং ইউনিয়নের লালব্রীজ এলাকায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের যুগ্ম সচিব ও চট্টগ্রাম বিভাগীয় পরিবার পরিকল্পনার পরিচালক মো. হাবিবুর রহমানের গাড়ির ধাক্কায় মনির হোসেন প্রাণ হারান। এসময় যুগ্ম সচিবকে বহনকারী গাড়িটি সড়কের পাশের খাদে পড়ে গেলে যুগ্ম সচিবও আহত হন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

যোগাযোগ করা হলে চিরিংগা হাইওয়ে থানার ইনচার্জ (ওসি) মো. মোরশেদুল আলম ভূঁইয়া আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, গাড়িটি জব্দ করা হয়েছ এবং আইনি প্রক্রিয়া শেষে নিহতের লাশ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মুকুল/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm