‘শিশুর লাশ’ ভেসে এলো সীতাকুণ্ডের সমুদ্র উপকূলে

সীতাকুণ্ড ইউনিয়নের মুরাদপুর গুলিয়াখালী সমুদ্র উপকূলে ভেসে আসা এক শিশুর লাশ উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। ওই শিশুকন্যার বয়স আনুমানিক ১২ বছর।

বুধবার (১৮ আগস্ট) সকাল ১১টার দিকে লাশ কোস্টগার্ডকে হস্তান্তর করা হয়। নিহত ওই শিশু নোয়াখালীর ভাসানচর এলাকায় নৌকাডুবির ঘটনায় রোহিঙ্গা দলের সদস্য বলে ধারনা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: স্বামী-স্ত্রীর লাশ ঝুলছিল এক শাড়িতে, দোলনায় দুলছিল নিষ্পাপ শিশু

স্থানীয় সূত্র জানায়, বুধবার সকালে উপজেলার মুরাদপুর ইউনিয়নের গুলিয়াখালী সমুদ্র উপকূলে এলাকাবাসী এক শিশুকন্যার লশ দেখতে পায়। পরে থানায় খবর দিলে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে। ওই শিশু নৌকাডুবিতে নিহত রোহিঙ্গা দলের সদস্য ধারণা করে কোস্টগার্ডের মাধ্যমে ভাসানচর থানায় লাশ পাঠিয়ে দেয় পুলিশ।

স্থানীয় চেয়ারম্যান মো. জাহেদ হোসেন নিজামী বাবু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, এক শিশুকন্যার লাশ ভেসে আসলে পুলিশ উদ্ধার করে কোস্টগার্ডের কাছে হস্তান্তর করে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবুল কালাম আজাদ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, সকালে ভেসে আসা মৃত শিশুকন্যার বয়স আনুমানিক ১২-১৩ বছর হবে। কোস্টগার্ডের মাধ্যমে লাশ ভাসানচর থানায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওই শিশু নোয়াখালীর ভাসানচর এলাকায় নৌকাডুবির ঘটনায় নিহত রোহিঙ্গা দলের সদস্য বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: ‘লাশ উদ্ধারের’ ৫ মাস পর জানা গেল ধর্ষণের পরই হত্যা করা হয় শিশুকে

প্রসঙ্গত, গত শুক্রবার নোয়াখালীর ভাসানচর রোহিঙ্গা ক্যাম্প থেকে নৌকাযোগে পালাচ্ছিল ৪১ জন রোহিঙ্গা। এ সময় নৌকাটি সাগরে ডুবে যায়। এরপর সন্দ্বীপসহ বিভিন্ন সাগর উপকূল থেকে এ পর্যন্ত ১১ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

সালাউদ্দিন/ডিসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm