সিগারেটের ছ্যাঁকায় শিশুর খুনি সেই পাষণ্ডের ফাঁসি

মিরসরাইয়ে ১৪ বছর আগে খুন হওয়া পাঁচ বছরের শিশু ওয়াসিম হত্যা মামলায় কাজী নাহিদ হোসেন পল্লবকে (৪২) মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

রোববার (৯ জুন) চট্টগ্রাম প্রথম অতিরিক্ত দায়রা জজ মো. রবিউল আউয়ালের আদালত এ রায় দেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি কাজী নাহিদ হোসেন পল্লব মিরসরাই মধ্যম মঘাদিয়া ইউনিয়নের ভূঁইয়া তালুক কাজী বাড়ির ফজলুল কবির প্রকাশ হরমুজ মিঞার ছেলে।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে ট্রিপল মার্ডার—২ খুনির ফাঁসি

বিষয়টি নিশ্চিত করে চট্টগ্রাম জেলা পিপি অ্যাড. ইফতেখার সাইমুল চৌধুরী আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, শিশু ওয়াসিম হত্যা মামলায় কাজী নাহিদ হোসেন পল্লবকে মৃত্যুদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও ছয় মাস বিনাশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত। আসামির উপস্থিতিতে রায় ঘোষণার পর সাজা পারোয়ানামূলে কারাগারে পাঠানো হয়।

তিনি আরও বলেন, অপর এক আসমি কাজী ইকবাল হোসেন বিপ্লবকে খালাস দিয়েছেন আদালত। এ মামলায় ২১ জন সাক্ষীর সাক্ষ্য উপস্থাপন করে রাষ্ট্রপক্ষ।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ২০১০ সালের ২২ নভেম্বর বিকেলে মিরসরাই উপজেলার মঘাদিয়া ইউনিয়নের ভূঁইয়া তালুক কাজী বাড়ির পূর্বপাশের ছনখোলায় পাঁচ বছর বয়সী শিশু ওয়াসিমকে শ্বাসরোধ করে খুন করে আসামি কাজী নাহিদ হোসেন পল্লব। সিগারেটের ছ্যাঁকা দিয়ে শিশুর মৃত্যু নিশ্চিত করার পর ঘরে এসে পরিবারের লোকজনকে এ ঘটনা বলেন পল্লব। সেদিন রাতেই পরিবারের লোকজনসহ ছনখোলা থেকে শিশুর মরদেহ বস্তাবন্দী করে পাশের ধানক্ষেতে ফেলে দেয়।

এদিকে ওয়াসিমকে সারাদিন খোঁজ করে না পেয়ে ২৩ নভেম্বর মিরসরাই থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন চাচা কাজী একরামুল হক। সেদিন ধানক্ষেতে ওয়াসিমের বস্তাবন্দী মরদেহ পেয়ে পুলিশকে জানায় স্থানীয়রা। মরদেহ উদ্ধারের পর ছনখোলা থেকে আসামির মোবাইল ও শিশুর স্যান্ডেল উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় ওয়াসিমের চাচা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেন। ২০১২ সালের ৭ মে কাজী নাহিদ হোসেন পল্লব, তার ভাই কাজী ইকবাল হোসেন বিপ্লব, বাবা ফজলুল কবির প্রকাশ হরমুজ মিয়া ও মা নুর জাহানকে অভিযুক্ত করে চার্জশিট জমা দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা মো. সামসুউদ্দিন আহমেদ।

পরের বছর ২০১৩ সালের ৩ ফেব্রুয়ারি অভিযোগ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন আদালত। বিচার চলাকালীন ফজলুল কবির ও নুর জাহান বেগম মারা যাওয়ায় তাদের মামলা থেকে অব্যহাতি দেওয়া হয়।

আরএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!