শাপলাপুরের ‘আতঙ্ক’ ৩ যুবক

তিন যুবক আতঙ্ক ছড়াচ্ছে মহেশখালীর পাহাড়ি ইউনিয়ন শাপলপুরে। এই তিন যুবকের কারণে রাতের ঘুম উড়ে গেছে ব্যবসায়ীদের। ওই তিন যুবক রাতের আঁধারে ডাকাতির পাশাপাশি রক্তাক্ত করছে ব্যবসায়ীকে। এরপরও প্রশাসন থেকে নেওয়া হচ্ছে কার্যকর কোনো পদক্ষেপ।

সোমবার (২৬ অক্টোবর) একই রাতে শাপলাপুরে তিন তিনটি ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় এক ব্যবসায়ীকে ছুরিকাঘাতও করে ডাকাতরা।

ব্যবসায়ীরা জানান, সোমবার রাত আনুমানিক ২টার দিকে শাপলাপুর বাজারে হানা দেয় ডাকাত দল। এ সময় তারা ছুরি মেরে আহত করে জাফর ক্লথ স্টোরের ব্যবসায়ী সাইদুল ইসলামকে (২৩)। এরপর সেই দোকান থেকে নগদ ১৫ হাজার টাকা, ২টি মোবাইলসহ লাখ টাকার মালামাল লুট করে।

আরও পড়ুন: ছিনতাইয়ের অভয়ারণ্য—সন্ধ্যা হলেই চট্টগ্রামের ৩ এলাকায় ‘আতঙ্ক’

একই রাতে ডাকাত দল বেলালের বিকাশের দোকান ও জাহাঙ্গীরের কাপড়ের দোকানেও হানা দেয়। এ দুই দোকান থেকেও নগদ টাকাসহ মালামাল নিয়ে যায়। শুধু বিকাশের দোকানেই ছিল নগদ ৬১ হাজার টাকা।

দোকান মালিকদের অভিযোগ— স্থানীয় তিন যুবক আবুল কালাম, ওয়াসিম ও বাক্কুস শাপলাজুড়ে আতঙ্ক ছড়াচ্ছে। সোমবারের ডাকাতির সঙ্গেও তারা জড়িত। তারা এলাকায় দীর্ঘদিন ধরে ডাকাতি করছে। কিন্তু সবকিছু জেনেও প্রশাসন কোনো ব্যবস্থা নিচ্ছে না।

ব্যবসায়ীদের অভিযোগের সঙ্গে একমত শাপলাপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল খালেক চৌধুরীও। তিনি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ওয়াসিম, আবুল কালাম ও বাক্কুস নামের তিন ডাকাত প্রায় সময় এলাকায় কোনো না কোনো ঘটনার সঙ্গে জড়িত। প্রশাসন কঠোর ব্যবস্থা না নেওয়ায় তারা দিন দিন আরও বেপরোয়া হয়ে অপরাধ সংঘটিত করে পার পেয়ে যাচ্ছে।

আরও পড়ুন: রাতেই রক্ত ঝরল ছাত্রলীগের দ্বন্দ্বে, আতঙ্ক ছড়াচ্ছে নাহিদ—কায়সার গ্রুপ

যোগাযোগ করা হলে মহেশখালী থানার ওসি মো. আব্দুল হাই আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ঘটনার বিষয়ে অবগত হয়েছি। অভিযোগ পেলে তদন্তসাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

শাহাবউদ্দীন/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm