লিফটে আটকা—১০ ডাক্তার উদ্ধার ফায়ার সার্ভিসের আধঘণ্টার যুদ্ধে

নগরের জিইসি মোড় এলাকার বিএমএ ভবনের লিফটে ৩০ মিনিট আটকে ছিলেন ইউএসটিসি মেডিকেলের ১০ জন ডাক্তার।

ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের কর্মীরা এসে তাদের উদ্ধার করতে সক্ষম হয়। তবে সেখানে কোনো ধরনের অঘটন ঘটেনি।

শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) রাত ১০টার দিকে জিইসি মোড় এলাকার বিএমএ ভবনে এ ঘটনা ঘটে।

বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন চন্দনপুরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম।

আরও পড়ুন : উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে শিশুর মৃত্যু—অবহেলার অভিযোগ ডাক্তার-নার্সের বিরুদ্ধে

লিফটে আটকেপড়া ডা. রাকিব আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আমরা রাত ১০টার দিকে বিএমএ ভবন থেকে নামছিলাম। ভবনের চারতলা থেকে আমরা ১০ জন ডাক্তার লিফটে উঠি। স্বাভাবিকভাবে আমরা নিচে নেমে আসি। নিচে আসার পর দেখি লিফট আর খুলে না। লিফটি নিচের দিকে দেবে গেছে। আমরা অনেক চেষ্টা করে লিফটের ভেতরের দরজাটা খুলতে পারলেও বাইরের দরজাটা খুলতে পারিনি। প্রথমে সিকিউরিটি ও পরে তাদের ইঞ্জিনিয়ার এসে চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়। তারপর ফায়ার সার্ভিসকে খবর দিলে তারা এসে আমাদের উদ্ধার করে। আমরা প্রায় ৩০ মিনিট আটকে ছিলাম। আল্লাহর রহমতে আমরা সবাই অক্ষত অবস্থায় বেরিয়ে আসতে পেরেছি।

চন্দনপুরা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের সিনিয়র স্টেশন কর্মকর্তা শহিদুল ইসলাম আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, জিইসি মোড় এলাকার বিএমএ ভবনের লিফটে ১০ জন ডাক্তার আটকে পড়ে। খবর পেয়ে আমরা ৯টা ৫০ মিনিটের দিকে ঘটনাস্থলে পৌঁছাই। তারপর ৫ মিনিটের মধ্যে দ্রুত তাদের উদ্ধার করি। তবে কোনো ধরনের অঘটন ঘটেনি। সবাই স্বাভাবিক আছেন।

তিনি আরও বলেন, লিফটের ধারণ ক্ষমতার চেয়ে ওজন বেশি হওয়ায় লিফটি নিচের দিকে দেবে যায়। এর চেয়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনাও ঘটতে পারতো।

এএইচ/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm