রোগী দেখতে গিয়ে এক বছরের জন্য জেলে যেতে হলো ডাক্তারকে

চকরিয়ায় ফরিদ উদ্দিন নামের এক ভুয়া ডাক্তারকে এক বছরের কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোমবার (১৬ মে) দুপুরে পৌর শহরের বাস টার্মিনালের সিটি হাসপাতাল থেকে তাকে আটক করা হয়। এসময় অভিযানে নেতৃত্ব দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহাত উজ জামান।

আরও পড়ুন: কলেজে না গিয়েও তিনি এমবিবিএস ডাক্তার, চিকিৎসা দেন জটিল রোগের

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহাত উজ জামান বলেন, ফরিদ উদ্দিন নামের এক ব্যক্তি নিজেকে এমবিবিএস ডাক্তার পরিচয় দিয়ে রোগী দেখছিলেন। তিনি সিটি হাসপাতালে নিয়োগ পরীক্ষার জন্য অবস্থান করছেন জানতে পেরে আজ (সোমবার) দুপুরের দিকে চকরিয়া থানা পুলিশ ও আনসার সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে তাকে আটক করা হয়।

Yakub Group

তিনি আরও বলেন, আটকের পর ফরিদ উদ্দিনের কাছ থেকে এমবিবিএস সনদ চাইলে তিনি ডা. মাঈন উদ্দিন নামের একজন ডাক্তারের সার্টিফিকেট দেখান। কিন্তু চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. শোভন দত্ত কাগজপত্র যাচাই-বাছাই করে দেখেন ফরিদ উদ্দিন ডা.মাঈন উদ্দিনের সার্টিফিকেট জালিয়াতি করে সিটি হাসপাতালে হস্তান্তর করেন। পরে ফরিদ উদ্দিন ভ্রাম্যমাণ আদালতের কাছে দোষ স্বীকার করলে তাকে এক বছরের কারাদণ্ডসহ ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

মুকুল/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm