‘অনন্য রেকর্ড’— রাউজানে ভোটের আগেই সবাই জয়ী

ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে রাউজানে অনন্য এক রেকর্ড হয়েছে। এ উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নে চেয়ারম্যান, সাধারণ ও সংরক্ষিত আসনে মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া সবাই নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। কারণ প্রতিটি পদের বিপরীতে প্রার্থী যে হয়েছেন শুধু একজনই!

মঙ্গলবার (২ নভেম্বর) ছিল মনোয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন। কিন্তু ওইদিন ১৪টি ইউনিয়নে ১৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী, ১২৬টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ৪২টি সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রতিটিতে একজন প্রার্থী ছাড়া আর কেউ মনোনয়নপত্র জমা দেননি। মনোনয়নপত্র জমা দেওয়া প্রার্থীদের সবাই আওয়ামী লীগের নেতাকর্মী। এছাড়া ১৪ জন চেয়ারম্যান প্রার্থীর মধ্যে ১১ জনই বর্তমান সরকারদলীয় চেয়ারম্যান।

সোমবার (১ নভেম্বর) উপজেলার চেয়ারম্যান-মেম্বার প্রার্থীরা মনোনয়ন ফরম একদিন আগে জমা করেছিলেন স্ব স্ব রিটানিং কর্মকর্তার অফিসে। উপজেলার ১৪টি ইউনিয়নের চেয়ারম্যানে সরকার দলীয় ১৪ চেয়ারম্যান, ১২৬টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ৪২ সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রতিটিতে একজন করে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন।

আরও পড়ুন: ইউপি নির্বাচন—রাউজানে নৌকায় উঠলেন যারা

এদিকে নির্বাচন অফিস সূত্রে জানা গেছে আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৪ নভেম্বর) মনোয়নপত্র যাছাই-বাছাই করা হবে। এদিন কারো মনোনয়নপত্র বাতিল হলে সেক্ষেত্রে নির্বাচনি আইন অনুযায়ী কমিশন নির্ধারিত ওই আসনের জন্য পরবর্তী নিদেশনা দেবে।

এর আগে গত সোমবার সকাল ১০টা থেকে বিভিন্ন ইউনিয়নের প্রার্থীরা উপজেলা সদরে এসে মনোনয়নপত্র জমা দেন।

এদিন উপজেলা মৎস্য অফিসার পিযুষ প্রভাকরের কার্যালয়ে মনোয়নপত্র জমা দেন রাউজান উপজেলা যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক উরকিরচর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সৈয়দ আবদুল জব্বার সোহেল, রাউজান উপজেলা আওয়ামী লীগের বন ও পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক পশ্চিম গুজরার বর্তমান চেয়ারম্যান সাহাবউদ্দিন আরিফ এবং পূর্ব গুজরা ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি আব্বাস উদ্দিন আহম্মদ।

উপজেলা সমবায় অফিসার মুজিবুর রহমানের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন উপজেলা আওয়ামী লীগের কৃষি বিষয়ক সম্পাদক পাহাড়তলী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান রোকন উদ্দিন এবং নোয়াপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান ও নোয়াপাড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল মিয়া।

উপজেলা নির্বাচন অফিসার অরুন উদয় ত্রিপুরার কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন নোয়াজিশপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এম সরোয়ার্দি সিকদার, চিকদাইর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান প্রিয়তোষ চৌধুরী, বাগোয়ান ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য ভুপেশ বড়ুয়া এবং কদলপুর ইউনিয়নে ব্যাংকার নিজাম উদ্দিন আহম্মদ।

আরও পড়ুন: রাউজানে এক দিনে শত আয়োজন

উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা কর্মকর্তা আব্দুল কুদ্দসের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন হলদিয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও চেয়ারম্যান বীর মুক্তিযোদ্ধা শফিকুল ইসলাম এবং ডাবুয়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বর্তমান চেয়ারম্যান আবদুর রহমান চৌধুরী লালু।

মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মর্কা চৌধুরী মনিরুজ্জানের কার্যালয়ে মনোনয়নপত্র জমা দেন বিনাজুরী ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের সহসভাপতি রবিন্দ্রলাল চৌধুরী, রাউজান সদর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি বিএম জসিম উদ্দিন হিরু, গহিরা ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগ সভাপতি নুরুল আবছার বাশি।

এছাড়া মনোনয়নপত্র জমা করেন রাউজানের ১৪টি ইউনিয়নের ১২৬টি সাধারণ ওয়ার্ড ও ৪২ সংরক্ষিত মহিলা আসনেও একজন করে প্রার্থী মনোনয়নপত্র জমা দেন।

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm