রাউজানের অনাথ আশ্রম থেকে ‘নিখোঁজ’ সেই দুই বোনকে পাওয়া গেল পটিয়ায়

রাউজানের জগৎপুর অনাথ আশ্রম থেকে ‘নিখোঁজ’ দুই বোনকে পটিয়ার শোভনদণ্ডী থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ।

শুক্রবার (২৮ জানুয়ারি) ভোরে শোভনদণ্ডীর মাসির বাড়ি থেকে তাদের উদ্ধার করে রাউজান থানা পুলিশ। প্রিয়শ্রী দে (১৪) ও জয়শ্রী দে (১০) এতদিন তাদের মাসি রুমি চৌধুরীর বাড়িতে ছিল।

এ ঘটনায় তাদের মা রাজশ্রী দে’কে আটক করেছে পুলিশ।

গত ২০ জানুয়ারি রাউজানের ৯ নম্বর পাহাড়তলী ইউনিয়নের জগৎপুর অনাথ আশ্রম থেকে ‘নিখোঁজ’ হয়েছে বলে আশ্রমের কর্মকর্তাদের বাদি করে থানায় অভিযোগ দেন মেয়ে দুটির বাবা রনজিত কুমার দে।

আরও পড়ুন : অনাথ আশ্রম থেকে উধাও দুই বোন, সিসি ক্যামেরার ফুটেজ দেখতে চেয়ে লাঞ্ছিত বাবা

রনজিতের বাড়ি ফটিকছড়ির ভূজপুর হালুয়াছড়ি ইউনিয়নের বারইপাড়া এলাকার পশ্চিম আধারমানিক। স্ত্রীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় মেয়ে দুটির দেখভালে অসুবিধা হচ্ছিল। তাই তাদের রাউজানের অনাথ আশ্রমে ভর্তি করেছিলেন তিনি।

নিখোঁজের পর অনাথ আশ্রমের তত্ত্বাবধায়ক সৌমিত্র চক্রবর্তী বলেন, দুই শিশুকন্যাকে তাদের মা রাজশ্রী দে এসে অনাথ আশ্রম থেকে নিয়ে যায়।
বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে ও অনলাইন পোর্টালে এ নিয়ে প্রতিবেদন প্রকাশ হলে আশ্রমের তত্ত্বাবধায়ক সৌমিত্র চক্রবর্তী রাউজান থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন। অভিযোগের ভিত্তিতে উদ্ধার অভিযানে নামে পুলিশ।

রাউজান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবদুল্লাহ আল হারুন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, অনাথ আশ্রম থেকে দুই শিশুকন্যা নিখোঁজের বিষয়ে তাদের মা রাজশ্রী দে’র মোবাইল ফোন নম্বরে বারবার কল দেওয়া হলেও তিনি রিসিভ করেননি। এরপর নম্বর ট্র্যাকিং করে নগরের পাচঁলাইশ থানার হামজারবাগ এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তিনি তাঁর বোন রুমি চৌধুরীর বাড়িতে দুই মেয়েকে রেখে এসেছেন বলে জানান। এরপর শুক্রবার ভোরে পটিয়া ১৯ নম্বর শোভনদণ্ডীর মাহাজনহাট এলাকার রুমি চৌধুরীর বাড়ি থেকে দুই মেয়েকে উদ্ধার করা হয়।

মেয়ে দুটি এবং তাদের মা বর্তমানে থানা হেফাজতে আছেন বলে জানান ওসি।

শফিউল/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm