রক্তাক্ত বদরখালী সমিতি—এবার কোপানো হলো ৫ পুলিশকে

কক্সবাজারের চকরিয়ায় হত্যা মামলার আসামি ধরতে গিয়ে এবার দায়ের কোপ খেল পুলিশ।

জমি সংক্রান্ত বিরোধ নিরসনে বদরখালী সমিতি অফিসে সালিশে প্রতিপক্ষের দায়ের কোপে খুন হন মো. বদন। খুনের ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার করতে অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় তাদের ওপর দা এবং লাঠি নিয়ে হামলা করে আসামির লোকজন।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বদরখালী ইউনিয়নের ঠুটিয়াখালীতে এ ঘটনা ঘটে। এতে ৫ পুলিশ সদস্য আহত হন। তাদের উদ্ধার করে চকরিয়া উজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

আরও পড়ুন : রক্তাক্ত বদরখালী সমিতি—সালিসে যুবককে কুপিয়ে খুন, ৩ জন চট্টগ্রাম মেডিকেলে

তবে অভিযানে মো. সাগর (২৮) নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তিনি ওই এলাকার মো. আব্দুল জলিলের ছেলে।

সোমবার বিষয়টি নিশ্চিত করে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওসমান গনি আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, মো. বদন হত্যার ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তার অভিযানে যায় পুলিশ। এ সময় আসামিরা দা ও লাঠি নিয়ে পুলিশের ওপর হামলা করে। এতে দায়ের কোপ ও লাঠির আঘাতে ২ জন এসআই এবং ৩ জন কনস্টেবল গুরুতর আহত হন। তাদের দ্রুত উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়।

অভিযানে সাগর নামের একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। বাকিদের গ্রেপ্তারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলে জানান ওসি।

উল্লেখ্য, রোববার দুপুরে জমি সংক্রান্ত সালিশে অংশ নিয়ে প্রতিপক্ষের হামলায় খুন হন মো. বদন (৪০) নামের এক ব্যক্তি। এ ঘটনায় আরো ৪ জন আহত হন।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm