যে শুনানিতে জামিন পেলেন পরীমনি

অবশেষে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার আলোচিত চিত্রনায়িকা পরীমনি জামিন পেয়েছেন।

মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুর ২টায় ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে তাঁর জামিন শুনানি শুরু হয়। শুনানি শেষে পরীমনির জামিন আবেদন মঞ্জুর করেন আদালত।

এর আগে গত ২২ আগস্ট পরীমনির জামিন চেয়ে আবেদন করা হয়। ওই দিন আদালত শুনানির জন্য ১৩ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেন। পর দিন আরেক দফা আবেদনে ‘দ্রুত শুনানির’ আবেদন করেন পরীমনির আইনজীবী। এতে সাড়া না পেয়ে তিনি হাইকোর্টে রিট করেন। সেখানে রুল চাওয়ার পাশাপাশি পরীমনির জামিন আবেদনও করা হয়। হাইকোর্ট গত ২৬ আগস্ট সরাসরি জামিন আদেশ না দিয়ে রুল জারি করেন।

আরও পড়ুন: পরীমনির ‘পাপ’—কেঁচো খুঁড়তে সাপ!

এদিকে ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে পরীমনির পক্ষে শুনানি করেন তাঁর আইনজীবী মজিবুর রহমান। জামিন শুনানিতে অ্যাডভোকেট মজিবুর রহমান বলেন, আসামি পরীমনিকে সাতদিনের রিমান্ডে নেওয়া হয়েছে। কিন্তু কোনো তথ্য উদ্ঘাটন করা যায়নি। রিমান্ডের কারণে পরীমনির অবস্থার অবনতি হওয়ায় তিনি শারীরিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তিনি একজন নারী, তিনি জামিন পেতে পারেন। এছাড়া আসামি যদি নারী, শিশু অথবা বিকলাঙ্গ হয় তাহলে আদালত জামিন দিতে পারেন।

পরীমনির আইনজীবী আরও বলেন, পরীমনি অনেক ছবির কাজ করেছেন। কারাগারে থাকার কারণে ‘প্রীতিলতা’ নামের একটি সিনেমায় তিনি কাজ করতে পারছেন না। এ মামলার যে ধারা সেটা সর্বোচ্চ সাজা হচ্ছে পাঁচ বছর। সেক্ষেত্রে আসামি অবশ্যই জামিন পেতে পারেন। যেকোনো শর্তে আমরা জামিন চাই। আর জামিন পেলে আসামি পলাতক হবেন না।

আলোকিত চট্টগ্রাম
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm