যুবক নিহত—আরব আমিরাতে ফেরার স্বপ্ন নিমিষেই শেষ ট্রাকের ধাক্কায়

রাউজানে সড়ক দুর্ঘটনায় মো. মাসুদ (৩২) নামে এক প্রবাসী যুবক নিহত হয়েছেন।

গত রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) রাত ৮টার দিকে চট্টগ্রাম-কাপ্তাই সড়কের পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-২ নোয়াপাড়া জোনাল অফিস সামনে এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিহত মাসুদ উপজেলার ১১ নম্বর পশ্চিম গুজরা ইউনিয়নের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের মগদাই মধ্যমপাড়ার আব্দুল হাকিম সারাং বাড়ির মোহাম্মদ লোকমানের ছেলে। লোকমানের তিন ছেলের মধ্যে মাসুদ সবার বড়।

আরও পড়ুন: ‘স্পট—ফৌজদারহাট’ রেল লাইনের পাশেই যুবকের রক্তাক্ত লাশ

প্রত্যক্ষদর্শী ও পরিবার সূত্রে জানা গেছে, নিহত মাসুদ সংযুক্ত আরব আমিরাতের শারজার একটি বেসরকারি কোম্পানিতে ইলেকট্রিকের কাজ করতেন। গত ৮ মাস আগে তিনি ছুটিতে দেশে আসেন। কিন্তু করোনা পরিস্থিতির কারণে ফ্লাইট বন্ধ থাকায় আর ফিরে যেতে পারেননি। এর মধ্যে মাত্র সাড়ে চারর মাস আগে তিনি বিয়ে করেন।

ঘটনার দিন মাসুদ একটি সামাজিক অনুষ্ঠানে যোগ দিতে রাঙ্গুনিয়া থেকে মোটরসাইকেলে নোয়াপাড়া ফিরছিলেন । এ সময় তার মা নোয়াপাড়া পথেরহাটে অপেক্ষায় ছিলেন। পথেরহাটের কাছাকাছি পল্লী বিদ্যুৎ অফিসের সামনে আসতেই ড্রাম ট্রাকের ধাক্কায় রাস্তায় ছিটকে পড়েন মাসুদ। গুরুতর আহত মাসুদকে উদ্ধার করে একটি বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় স্থানীয়রা। পরে চিকিৎসকের পরামর্শে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। সেখানে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত আনুমানিক ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

এদিকে রাউজানের সাংসদ এ বি এম ফজলে করিম চৌধুরীর সহযোগিতায় ময়নাতদন্ত ছাড়াই ভোর ৪টার দিকে তার লাশবাহী গাড়ি গ্রামের বাড়িতে এসে পৌঁছে।

আরও পড়ুন: সড়কে পড়ে ছিলেন আহত বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থী, হাসপাতালে নেওয়ার পথে মৃত্যু

সোমবার (৬ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১টায় মগদাই মধ্যমপাড়া জামে মসজিদ মাঠে নামাজে জানাজা শেষে সামাজিক কবরস্থানে নিহতের মরদেহ দাফন করা হয়।

রাউজান থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহ আল হারুন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ট্রাকের সঙ্গে ধাক্কা লেগে একজন প্রবাসী বাইক আরোহী নিহত হয়েছেন। ঘাটত ট্রাকটি আটক করা হয়েছে।

শফি/আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm