জমিতে মাটি ফেলা নিয়ে কথা কাটাকাটি, শেষে মৃত্যু—মাঝখানেই যত ‘রহস্য’

মিরসরাইয়ে একটি সড়কে মাটি ফেলাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটির জেরে আবুল কাশেম (৫৬) নামে এক ব্যক্তিকে খুন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) সকালে উপজেলার হাইতকান্দি ইউনিয়নের ৭ নম্বর ওয়ার্ড করুয়া গ্রামের কুরুয়া ছদর আলী জামে মসজিদ সড়কের সংস্কারকাজ নিয়ে এ ঘটনা ঘটে।

আরও পড়ুন: ‘১০ মিনিটেই মৃত্যু’ আত্মহত্যায়—সুইসাইড পড বাজারে আনতে চাচ্ছে সুইজারল্যান্ড

নিহত আবুল কাশেম ওই গ্রামের মৃত ঘোড়া মিয়ার ছেলে।

এদিকে ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে উপজেলার হাইতকান্দি ইউনিয়নের করুয়া গ্রাম থেকে আবুল কাশেমের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরে ঘটনার সঙ্গে জড়িত শেখ আহমদ (৫৫) নামের একজনকে আটক করেছে মিরসরাই থানা পুলিশ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, কুরুয়া ছদর আলী জামে মসজিদ সড়কের সংস্কারকাজের মাটি আবুল কাশেমের জমিতে ফেলছিলেন শেখ আহমেদ। এ নিয়ে প্রতিবাদ করেন আবুল কাশেম। পরে উভয়পক্ষের মধ্যে কথা কাটাকাটি শুরু হলে এক পর্যায়ে শেখ আহমদ ও তার ছেলে মো. পরান আবুল কাশেমের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়ায়। এরপর ঘটনাস্থলে অসুস্থ হয়ে পড়লে বাড়ি নেওয়ার পথে মারা যান আবুল কাশেম।

আরও পড়ুন: মাদারবাড়িতে ৩৩ ঘর পুড়ে ছাই౼’আগুন’ শুনেই স্ট্রোকে মৃত্যু

জানতে চাইলে মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আজ (শনিবার) সকাল সাড়ে ৭টায় ৯৯৯-এ ফোন পেয়ে উপজেলার হাইতকান্দি ইউনিয়নের করুয়া গ্রাম থেকে আবুল কাশেমের লাশ উদ্ধার করা হয়। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। মাটি ফেলাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটেছে বলে জানতে পেরেছি।

ওসি আরও বলেন, সুরতহালে লাশের শরীরে আঘাতের কোনো চিহ্ন পাওয়া যায়নি। ঘটনার সঙ্গে জড়িত শেখ আহমেদকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। তার ছেলে পরান পলাতক। তবে এ ঘটনায় থানায় কেউ অভিযোগ দেয়নি। অভিযোগ পেলে পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

আজিজ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm