মুহিবুল্লাহ খুন—রাতের অভিযানে আটক ২ রোহিঙ্গা

উখিয়ায় রোহিঙ্গাদের শীর্ষ নেতা মো. মুহিবুল্লাহকে গুলি করে খুনের ঘটনায় আরো দুই রোহিঙ্গাকে আটক করেছে ১৪ এপিবিএন সদস্যরা।

আটক রোহিঙ্গারা হলেন- জিয়াউর রহমান ও আব্দুস সালাম।

শুক্রবার (১ অক্টোবর) রাতে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়নের একটি দল উখিয়া কুতুপালং রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অভিযান চালিয়ে তাদের আটক করে। আটক দুজনকে রাতেই উখিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে এপিবিএন।

ক্যাম্প নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ১৪ এপিবিএন’র পুলিশ সুপার নাঈমুল হক শনিবার (২ অক্টোবর) সকালে দুই জন রোহিঙ্গা আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

Yakub Group

আরও পড়ুন : রোহিঙ্গা নেতা খুন—রাতে মামলা, সকালে গ্রেপ্তার

এর আগে শুক্রবার বেলা ১২টার দিকে এপিবিএন সদস্যরা মো. সেলিম ওরফে লম্বা সেলিমকে আটক করে। পরে তাকে উখিয়া থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে।

এ নিয়ে মুহিবুল্লাহ হত্যার ঘটনায় তিন সন্দেহভাজন রোহিঙ্গাকে আটক করা হয়েছে।

গত বুধবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে অজ্ঞাত বন্দুকধারীরা মুহিবুল্লাহকে তার অফিসে ঢুকে গুলি করে। এ সময় তার বুকে ৩ রাউন্ড গুলি লাগে। এপিবিএন সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে ‘এমএসএফ’ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। পরে উখিয়া থানা পুলিশকে লাশ হস্তান্তর করা হয়।

হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী তৎপর রয়েছে বলে জানিয়েছেন ১৪ এপিবিএনেরর অধিনায়ক পুলিশ সুপার নাঈমুল হক।

বলরাম/ডিসি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm