মিরসরাইয়ে নির্বাচন করছেন মৃত ব্যক্তি!

আগামী ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে অনুষ্ঠিত হবে মিরসরাই উপজেলার ধুম ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন। ওই ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে (মেম্বার) পদে মনোনয়নপত্র নেন অর্জুন চন্দ্র দাশ। কিন্তু নির্বাচনি এলাকার ভোটার তালিকার কপি (সিডি) সংগ্রহ করতে গিয়ে তাঁর চক্ষু চড়কগাছ!

নির্বাচন কমিশনের যে ভোটার তালিকা তিনি নেন তাতে ‘অর্জুন চন্দ্র দাশ’কে মৃত দেখানো হয়েছে! এ অবস্থায় নির্বাচন কমিশন সচিব বরাবরে লিখিত অভিযোগ করেন অর্জুন।

আরও পড়ুন: মিরসরাইয়ে একসঙ্গে তিন জানাজার রেকর্ড, খুনি ছেলের ফাঁসি দাবি

জানা গেছে, মিরসরাই উপজেলার ধুম ইউনিয়নের ৯নং ওয়ার্ড ধুম গ্রামের মৃত সুধীর চন্দ্র দাশের ছেলে অর্জুন চন্দ্র দাশ। আগামী ১১ নভেম্বর অনুষ্ঠিতব্য ধুম ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ৯নং ওয়ার্ডে মেম্বার পদে নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করতে ১০ নভেম্বর রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয় থেকে মনোনয়নপত্র সংগ্রহ করেন তিনি।

Thai Food

১৩ নভেম্বর উপজেলা নির্বাচন কার্যালয় থেকে নির্বাচনি এলাকার ভোটার তালিকার কপি সংগ্রহ যান। কিন্তু তালিকায় নিজের নাম না পেয়ে বিষয়টি উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফারুক হোছাইনকে অবহিত করেন। ফারুক হোছাইন অনলাইনে সার্চ করে দেখেন ২০১২ সালের ২৫ মার্চ অর্জুন মারা গেছেন বলে উল্লেখ রয়েছে। ধুম ইউনিয়নের ধুম গ্রামের (৯ নং ওয়ার্ডের অংশ) তালিকায় ৩৩৫ নং সিরিয়াল কর্তন করা হয়েছে লেখা আছে।

অর্জুন চন্দ্র দাশ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আমার জাতীয় পরিচয়পত্র নং ১৯৭৭১৫১৫৩২২০০০০০১,  পাসপোর্ট নং ইছ০৪৩৮২৬১, ওয়ারিশ সনদ, চারিত্রিক সনদ, ব্যবসায়িক ট্রেড লাইসেন্স, স্থানীয় চেয়ারম্যানের দেওয়া প্রত্যয়নপত্র, টেক্স আদায়ের রশিদ এবং ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জীবিত লেখা রয়েছে। আমি সব ধরনের কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছি। শুধু তা নয় ২০১৭-২০১৮ সালে চিকিৎসার জন্য ভিসা নিয়ে ভারতে যাওয়া-আসাও করেছি। অথচ ভোটার তালিকায় ২০১২ সালের ২৫ মার্চ আমি মারা গেছি উল্লেখ করা হয়েছে। আমি জনগণের সেবা করতে চাই, আমি নির্বাচন করতে চাই।

আরও পড়ুন: শহর থেকে ছুরি কিনে মিরসরাইয়ে গিয়ে বাবা—মা—ভাইকে হত্যা করে ঘরের বড় ছেলে

এ ব্যাপারে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে মিরসরাই উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. ফারুক হোছাইন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, বিষয়টি সমাধানের জন্য নির্বাচন কমিশনে পাঠিয়েছি। সেখান থেকে যদি অনুমতি দেয় তাহলে অর্জুন নির্বাচনে অংশ নিতে পারবেন। অন্যথায় মনোনয়নপত্র বাতিল হবে।

আজিজ আজহার

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm