মাধ্যমিক পাস ‘মেডিসিন বিশেষজ্ঞ’!

নাম তার আমির-ই-আজম খান। শিক্ষাগত যোগ্যতা মাধ্যমিক পাস। কিন্তু নগরের দেওয়ানহাট এলাকার এক ফার্মেসিতে বসে ‘মেডিসিন বিশেষজ্ঞ’ হিসেবে রোগী দেখতেন নিয়মিত। শেষ পর্যন্ত র‌্যাবের হাতে আটক হলেন এ প্রতারক।

রোববার (২৪ অক্টোবর) রাতে দেওয়ানহাটের একটি ফার্মেসি থেকে চিকিৎসা দেওয়ার সময় তাকে আটক করে র‌্যাব-৭ এর একটি দল।

আটক আমির-ই-আজম খান (৫৩) কুমিল্লা জেলার মুরাদনগর থানার দৌলতপুর গ্রামের মৃত বজলুর রহমান খানের ছেলে।

আরও পড়ুন : ‘ভুয়া এনএসআই’ কর্মকর্তাকে ধরল পুলিশ

Thai Food

জানা যায়, মাধ্যমিক পাস আমির-ই-আজম খান দীর্ঘদিন ধরে দেওয়ানহাটের এক ফার্মেসিতে মেডিসিন বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন ডিগ্রিধারী পরিচয় দিয়ে রোগী দেখে আসছেন। সেই সঙ্গে রোগীভেদে হাতিয়ে নিতেন টাকা।

আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করে র‌্যাব-৭ এর সহকারী পরিচালক (মিডিয়া) মো. নূরুল আবছার আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, দেওয়ানহাট এলাকায় ফার্মেসিতে নিজেকে একজন মেডিসিন বিশেষজ্ঞ পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন ধরে ভুয়া চিকিৎসা দিয়ে মানুষের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিল আমির। এমন তথ্যের ভিত্তিতে গতকাল রাতে অভিযান পরিচালনা করে তাকে আটক করি। আটকের পর ওই ফার্মেসি থেকে বিভিন্ন চিকিৎসা সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও বলেন, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সে নিজেকে একজন ভুয়া চিকিৎসক হিসেবে স্বীকার করে। পরবর্তীতে আইনানুগ প্রক্রিয়া শেষে তাকে ডবলমুরিং থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

এএইচ/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm