মন্ত্রী বীর বাহাদুরের চ্যালেঞ্জ—ভোট চাইতে যাবেন না আলীকদমে

আগামী দুই বছরে আলীকদমের চেহারা যদি আরও পরিবর্তন ও সুন্দর করতে না পারি ভোটের জন্য আপনাদের কাছে আর আসব না, চ্যালেঞ্জ করলাম। চ্যালেঞ্জ করে কথা বলার সেই শিক্ষা ও আর্দশ শেখ হাসিনা ও জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু দিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (৯ সেপ্টেম্বর) সকালে আলীকদম উপজেলায় প্রায় ৪৫ কোটি ২৫ লাখ টাকা ব্যয়ে বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন ও ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি বক্তব্যে বীর বাহাদুর উসৈশিংএসব কথা বলেন।

আরও পড়ুন: ‘যৌথবাহিনীর ফাঁদ’ অস্ত্র—গুলিসহ পাহাড়ের ইউপিডিএফ কর্মী আটক

তিনি বলেন, এক সময় আলীকদমে স্কুল, ব্রিজ, বিদ্যুৎ,পাকা রাস্তা কিছুই ছিল না। মসজিদ-মন্দির ছিল ভাঙাচোরা। কিন্তু আজ আলীকদমের যে পরিবর্তন হয়েছে, তা আওয়ামী লীগ সরকার আমলেই হয়েছে। ভবিষ্যতে আরও উন্নয়ন হবে। বঙ্গবন্ধু যে স্বপ্ন নিয়ে দেশ স্বাধীন করেছিলেন, শেখ হাসিনা সেই স্বপ্ন বাস্তবায়নে বদ্ধপরিকর।

তিনি আরও বলেন, যারা এদেশের স্বাধীনতা, এদেশের মানুষের উন্নয়ন এবং সম্প্রীতি চাননি তারা ১৫ আগস্ট জাতির পিতাকে হত্যা করে ক্ষান্ত হননি, তারা বাংলার মানসকন্যা আমাদের সকলের প্রাণপ্রিয় নেত্রী শেখ হাসিনাকেও বারবার হত্যা চেষ্টা করেছেন। কিন্তু তারা প্রতিবারই ব্যর্থ হয়েছেন। তারা চায় না এদেশের উন্নয়ন। তারা চায় এদেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন না হোক। ষড়যন্ত্র চলছে এখনও। আজ মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কারণে আলীকদম তথা পুরো বান্দরবানে ব্যাপক পরিবর্তন হয়েছে, উন্নয়নের মহা কর্মযজ্ঞ চলছে-চলবে।

প্রধান অতিথি আলীকদম উপজেলায় উন্নয়নবোর্ডের ১৩টি, জেলা পরিষদের ৬টি, এলজিইআরডির ১টিসহ মোট ২০টি উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করেন। এছাড়া উন্নয়ন বোর্ডের ৫টি ও এলজিইআরডির ১টি প্রকল্পের ভিত্তিপ্রস্তর স্থাপন করেন।

আরও পড়ুন: লামায় ২ হাজার পরিবার পেল প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা

এছাড়া জেলা পরিষদের ১৪ গৃহহীনের গৃহনির্মাণসহ চাবি হস্তান্তর এবং বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি বান্দরবান ইউনিটের পক্ষ থেকে অসহায়দের নগদ অর্থ বিতরণ করেন তিনি।

এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি আব্দুর রহিম চৌধুরী, উন্নয়ন বোর্ডের বান্দরবান জেলার নির্বাহী প্রকৌশলী আবু বিন ইয়াছির আরফাত, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল কুদ্দুছ, জেলা পরিষদের সদস্য লক্ষ্মীপদ দাশ ও মোজাম্মেল হক বাহাদুর, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার সম্পাদক ও পার্বত্য চট্টগ্রাম চট্টগ্রাম বিষয়ক মন্ত্রীর একান্ত সহকারী সাদেক হোসেন চৌধুরী, বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট বান্দরবান ইউনিটের সাধারণ সম্পাদক অমল কান্তি দাশ, বান্দরবান জেলা পরিষদের নির্বাহী প্রকৌশলী মো. জিয়াউর রহমান, লামা উপজেলা চেয়ারম্যান মোস্তফা জামাল, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সায়েদ ইকবাল, জেলা পরিষদের সদস্য দুংড়িমং মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মংব্রাচিং মারমা, উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সমর রঞ্জুন বড়ুয়া, ইউপি চেয়ারম্যান নাছির উদ্দীন, ফেরদৌস রহমান, ফোগ্য মারমা, ক্রাতপুং ম্রোসহ জেলা-উপজেলার বিভিন্ন প্রশাসনিক কর্মকর্তা ও রাজনৈতিক নেতারা উপস্থিত ছিলেন।

আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm