‘ভিক্ষুক সেজে’ যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামি ধরল কোতোয়ালীর পুলিশ  

বারবার গ্রেপ্তার হলেও বের হয়ে যায় জামিনে  

চট্টগ্রামে এবার ভিক্ষুক সেজে মাদক মামলায় যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত এক আসামিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

কোতোয়ালী থানার এএসআই সাইফুল আলম ও এএসআই রণেশ বড়ুয়ার নেতৃত্বে একটি টিম বৃহষ্পতিবার (২৬ আগস্ট) বিকাল সাড়ে ৫টার দিকে এনায়েতবাজার বাটালী রোডের বরফ গলির সামনে থেকে এ আসামিকে গ্রেপ্তার করেন।

আটক আসামি মো. আলী হোসেন (৭০)। ২০১১ সালে তার মেয়ে নুর বেগমসহ (৩৭) তিনি ১০০ বোতল ফেনসিডিল নিয়ে র্যাবের হাতে গ্রেপ্তার হন। পরবর্তীতে র্যাব-৭ বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় এজাহার দায়ের করলে আসামির বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়।

আরও পড়ুন: ‘ছদ্মবেশ’—বাগানের কামলা সেজে ৭৪ রোহিঙ্গা এসেছে বোয়ালখালীতে

মামলার বিচারকাজ শেষে অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ আলী হোসনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ১ হাজার টাকা অর্থদণ্ড দেন। অনাদায়ে তাকে আরো ৬ মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেন।

কিন্তু আসামি আলী হোসেন জামিনে বের হয়ে আত্মগোপনে চলে যায়। পুলিশ জানায়, আলী হোসেনের বিরুদ্ধে কোতোয়ালী থানায় আরো ৬টি মাদক মামলা আছে। সে কোতোয়ালী থানার তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী।

কোতোয়ালী থানার ওসি নেজাম উদ্দিন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ‘আলী হোসেন প্রায়সময় মাদক নিয়ে গ্রেপ্তার হলেও বারবার জামিনে বের হয়ে ফের মাদক ব্যবসায় জড়িয়ে পড়ে। পুলিশের দুজন এএসআই ভিক্ষুকের ছদ্মবেশ ধারণ করে তার অবস্থান সম্পর্কে খোঁজখবর নিতে থাকে। অবশেষে বৃহস্পতিবার বিকেলে এনায়েতবাজার এলাকা থেকে তাকে গ্রেপ্তার করতে সক্ষম হয়।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm