ভাসানচরের পলাতক ১৮ রোহিঙ্গা মিরসরাইয়ে ধরা, ৫ জন উধাও

ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ১৮ জন পুরুষ ও নারী রোহিঙ্গা ধরা পড়েছে মিরসরাইয়ে। এর আগেও দু’বার ধরা পড়েছিল রোহিঙ্গা।

রোববার (১১ জুলাই) ভোর রাত ৫টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব শিল্পনগরের মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলের সুপার ডাইকের দক্ষিণ পাশ থেকে আনসার বাহিনীর সহায়তায় এদের আটক করে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।

এদিকে এদিন সকাল সাড়ে ৯টায় আরও ৫ জন রোহিঙ্গাকে স্থানীয়রা আটক করলে তারা পালিয়ে যায়। তবে তাদের ধরতে অভিযানে নেমেছে পুলিশ।

আটক হলেন- মো. আলী উল্লাহ (২৫), নজুমা বেগম (২০), আবদুর রশীদ (৩০), আবদুল মজিদ (২১), সামিরা (১৯), মনসুর আলম (২৮), ছলিমা বেগম (২৬), মর্জিনা আক্তার (২২), রোকেয়া আক্তার (২১), আছমিদা (১৯), উম্মে হাবিবা (২১), সামছুননাহার (৩), ইমরান খান (৮), হামিদা বেগম (৭), মোশারাফা বেগম (৬), সামিয়া বেগম (২), মুনতাহা সুলতানা রিনা (৬), আবদুল রহমান (২)।

জোরারগঞ্জ থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) শরীফ জামান বলেন, রোববার ভোরে রোহিঙ্গারা সাগর পথে ট্রলারে চড়ে ভাসান চর থেকে মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চলে ডুকে পড়ে। পরবর্তীতে তারা সুপার ডাইক পার হয়ে যাওয়ার সময় আনসার সদস্যরা তাদের আটক করে থানায় খবর দেয়। খবর পেয়ে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ তাদের আটক করে থানায় নিয়ে আসে। তাদের বিরুদ্ধে জোরারগঞ্জ থানায় মামলা করা হয়েছে। পালিয়ে যাওয়া ৫ রোহিঙ্গার খোঁজ করা হচ্ছে।’

এর আগে গত ২২ জুন ভাসানচর থেকে পালিয়ে আসা ১৪ জন ও ৩০ মে ৩ দালালসহ ১০ জন রোহিঙ্গাকে  মিরসরাই অর্থনৈতিক অঞ্চল থেকে আটক করে পুলিশ।

আজিজ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm