বৃদ্ধকে পিটিয়ে খুনের অভিযোগে গ্রেপ্তার মা—ছেলে

মিরসরাইয়ে কথা কাটাকাটির জেরে ননী গোপাল দে (৭৫) নামের এক বৃদ্ধকে পিটিয়ে খুন করার অভিযোগ উঠেছে।

সোমবার (৩ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় উপজেলার দুর্গাপুর ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের শিকারপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত ননী গোপাল দে একই গ্রামের দেওয়ানজি বাড়ির মৃত সুরেন্দ্র কুমার দে’র ছেলে।

এদিকে এ ঘটনায় মামলার পর লক্ষ্মী দাশ ও তার ছেলে রনি দাশকে গ্রেপ্তার করেছে জোরারগঞ্জ থানা পুলিশ।

Yakub Group

আরও পড়ুন: রাতের আঁধারে কুপিয়ে খুন করা হলো ব্যবসায়ীকে

নিহতের ভাতিজা ইন্দ্রজিৎ দে জানান, সোমবার দুপুরের একটি ঘটনার কথা সন্ধ্যায় লক্ষ্মী দাশের কাছে জানতে চান ননী গোপাল। এ সময় লক্ষ্মী উত্তেজিত হয়ে উঠলে ননীর ছেলে তাপস পায়ের তাকে জুতা ছুড়ে মারেন। পরে লক্ষ্মী সেই জুতা নিয়ে তাপসের বাবার মাথায় আঘাত করেন। পরে লক্ষ্মীর ছেলে রনি এসে আবারও জুতা দিয়ে আঘাত করলে ননী গোপালক অজ্ঞান হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। পরে স্বজনরা উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

জানতে চাইলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মরত চিকিৎসক রাজু সিংহ বলেন, হাসপাতালে আনার আগেই ননী গোপাল মারা যান। পরে পুলিশ এসে লাশ থানায় নিয়ে গেছে।

যোগাযোগ করা হলে জোরারগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) নুর হোসেন মামুন আলোকিত চট্টগ্রাম বলেন, লাশের ময়নাতদন্তের জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় নিহতের ছেলে তাপস কুমার দে বাদী হয়ে লক্ষ্মী দাশ ও ছেলে রনি দাশকে আসামি করে থানায় হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় দুজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আজিজ/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm