‘স্বামী—শাশুড়ীর নির্যাতন’ সইতে না পেরে আত্মহত্যা কলেজছাত্রীর

মিরসরাইয়ে বিয়ের তিন মাসের মাথায় বিবি মায়মুনা (১৯) নামে এক কলেজছাত্রী গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

শনিবার (৩১ জুলাই) উপজেলার সাহেরখালীর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ভোরের বাজার এলাকার বেলু ড্রাইভার বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে।

মায়মুনা খৈয়াছরা ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের নয়দুয়ার এলাকার মেহেরুল্লাহ মুন্সী বাড়ির মৃত নিজাম উদ্দিনের মেয়ে। তিনি নিজামপুর বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের এইচএসসি দ্বিতীয় বর্ষের মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থী।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক নিহতের স্বজন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, মায়মুনার সঙ্গে সাহেরখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ভোরের বাজার এলাকার বেলু ড্রাইভার বাড়ির মো. ইউনুস মিয়ার ছেলে ইকবাল হোসেন রিপনের বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকে তাকে শাশুড়ী ও স্বামী নির্যাতন করতো। খোঁচা মেরে কথাবার্তা বলতে শাশুড়ী। আজ দুপুরে স্বামী-স্ত্রী দুইজনই একসঙ্গে দুপুরের খাবার খান। বিকালে স্বামী রিপন আছরের নামাজ পড়ে এসে দেখেন দরজা খোলা এবং ভেতরে গিয়ে দেখেন গলায় ফাঁস দিয়ে ঘরের তীরের সঙ্গে আত্মহত্যা করেছে।

সাহেরখালী ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য জয়নাল আবেদীন দুলাল আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আছরের নামাজের পর মেয়ের ভাসুর ফোন দিয়ে বলে আমার ছোট ভাইয়ের বউ গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করেছে। খবর পেয়ে আমি দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুটে যায়। তবে কী কারণে আত্মহত্যা করছে তা এখনও জানা যায়নি।

বিষয়টি আলোকিত চট্টগ্রামকে নিশ্চিত করেছেন মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুজিবুর রহমান। তিনি বলেন, ঘটনাস্থলে আমার অফিসারদের পাঠিয়েছি। তবে এখনো কিছু বলা যাচ্ছে না।

আজিজ

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm