বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণ—ধর্ষক যুবকের ঠাঁই হলো কারাগারে

সীতাকুণ্ডে ধর্ষণের অভিযোগে ইকবাল হোসেন মানিক (৪৫) নামে এক যুবককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ।

রোববার (৫ সেপ্টেম্বর) বিকেলে বহরপুর সমুদ্র উপকূল থেকে তাকে গ্রেপ্তার করে সীতাকুণ্ড থানা পুলিশ। গ্রেপ্তার মানিক বারৈয়ারঢালা ইউনিয়নের বহরপুরের মৃত আলী মিয়ার ছেলে।

আরও পড়ুন: মেয়েকেই ধর্ষণ করল নরপিশাচ বাবা

মামলা সূত্রে জানা যায়, বহরপুর এলাকার তালাকপ্রাপ্ত এক নারীকে বিয়ের প্রলোভনে গত ৮ আগস্ট বাঁশবাড়িয়া ইউনিয়নের এম এম জুট মিল এলাকার একটি বাসায় নিয়ে যান মানিক। এরপর সেই নারীকে ধর্ষণ করেন। আবার প্রতারণার মাধ্যমে ওই নারীর ৩ লাখ টাকা আত্মসাতও করেন মানিক।

এদিকে মানিকের প্রলোভন ও প্রতারণা ধরা পড়ায় থানায় মামলা করেন ভুক্তভোগী ওই নারী। পরে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

আরও পড়ুন: ‘১০ যুবকের কাণ্ড’ চলন্ত বাসে তরুণীকে একের পর এক ধর্ষণ

ভিকটিমের ভাই রিদোয়ান বলেন, ঘটনা ধামাচাপা ও মামলা তুলে নিতে প্রতিনিয়ত হুমকি-ধমকি দিচ্ছে মানিকের লোকজন।

যোগাযোগ করা হলে সীতাকুণ্ড মডেল থানার (ওসি) আবুল কালাম আজাদ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ৮ আগস্টের ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদি হয়ে ইকবাল হোসেন মানিককে অভিযুক্ত করে ধর্ষণ মামলা করেন। তদন্তের পর তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

সালাউদ্দিন/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm