বিয়েতে অনাগ্রাহী মালালা ঘর বাঁধলেন—বদলে গেল কথাও

ঘর বেঁধেছেন শান্তিতে নোবেল পুরস্কার জয়ী মালালা ইউসুফজাই। যুক্তরাজ্যের বার্মিংহামের বাড়িতে মঙ্গলবার (৯ নভেম্বর) অনাড়ম্বর আয়োজনের মধ্যদিয়ে জীবনের দ্বিতীয় অধ্যায় শুরু করলেন তিনি। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টুইটারে নিজের বিয়ের কথা জানিয়ে স্বামী ও মা-বাবার সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবিও যুক্ত করেন মালালা।

পাকিস্তানের সংবাদমাধ্যম দ্য ডন জানিয়েছে, মালালার স্বামীর নাম আসের মালিক। তিনি পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের হাই পারফরম্যান্স সেন্টারের ম্যানেজার। ২০১৪ সালে সবচেয়ে কম বয়সী হিসেবে মালালা নোবেল শান্তি পুরস্কার লাভ করেন। সম্প্রতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় থেকে দর্শন, রাজনীতি ও অর্থনীতির ওপর স্নাতক ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

আরও পড়ুন: করোনা : ১০ দিনের শূন্যে স্বস্তিতে চট্টগ্রাম

বিয়ের পর উচ্ছ্বসিত মালালা টুইটারে লিখেন, আজকের দিনটি আমার জীবনের একটি মহামূল্যবান দিন। আমি সারাজীবনের জন্য গাঁটছড়া বেঁধেছি। আমাদের জন্য প্রার্থনা করবেন। সামনের পথটুকু একসঙ্গে চলার জন্য অধীর হয়ে আছি।

তবে কিছুদিন আগেই বিয়ের ব্যাপারে নিজের অনাগ্রহের কথা জানিয়েছিলেন মালালা। গত জুন মাসে ব্রিটেনের একটি সাময়িকীকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছিলেন, মানুষকে কেন বিয়ে করতেই হবে এটা আমি বুঝতে পারি না। কাউকে জীবনে সঙ্গী করতে চাইলে কেন বিয়ের কাগজপত্রে সই করতে হবে। শুধুমাত্র যৌথতার মাধ্যমে কেন এটা হতে পারে না?

উল্লেখ্য, মালালা ইউসুফজাই ১৯৯৭ সালের ১২ জুলাই উত্তর-পশ্চিম পাকিস্তানের খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের সোয়াত জেলায় পশতুন জাতিগোষ্ঠীর অন্তর্ভুক্ত একটি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। নারী শিক্ষা বিস্তারে কাজ করে যাওয়া মালালাকে ২০১২ সালে উগ্রবাদীরা গুলি করে। এ সময় চিকিৎসার জন্য তাঁকে যুক্তরাজ্যে নেওয়া হয়। এরপর থেকে তিনি পরিবারসহ সেখানেই বসবাস করছেন।

এসি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm