বিদ্রোহী প্রার্থী—সমর্থকরা আওয়ামী লীগে থাকতে পারবে না : মাহবুব উল আলম হানিফ

আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ এমপি বলেছেন, স্থানীয় ও জাতীয় নির্বাচনে যারা দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে নৌকার বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে নির্বাচন করেছেন এবং যারা সহযোগিতা করেছেন তারা দলীয় পদে থাকতে পারবে না। তাদের বিষয়ে দল কঠোর সিদ্ধান্ত নেবে।

বৃহস্পতিবার (২৯ ডিসেম্বর) বিকালে কক্সবাজার জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত কর্মী সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি একথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, আগামী ২০ জানুয়ারি কক্সবাজারে জেলা আওয়ামী লীগের তৃণমূল প্রতিনিধি সভা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিনিধি সভায় আমন্ত্রিত প্রতিনিধিবৃন্দ সংগঠনের সকল বিষয়ে তাদের মতামত কেন্দ্রীয় নেতাদের সামনে উপস্থাপন করতে পারবেন। তাদের সকল মতামত গুরুত্বের সঙ্গে পর্যালোচনা করা হবে।

আরও পড়ুন : আলোকিত চট্টগ্রামে প্রতিবেদন, আওয়ামী লীগের অ্যাকশন—৭ বিদ্রোহী বহিষ্কার আনোয়ারায়

তিনি বলেন, দলীয় সংসদ সদস্যদের সঙ্গে কর্মীদের নিয়মিত যোগাযোগ থাকতে হবে। কর্মীদের সাথে সাংসদদের দূরত্ব থাকলে তা দ্রুত নিরসন করবেন।

যেসব ইউনিয়নে সম্মেলন হয়নি সেসব ইউনিয়নের সম্মেলন সমাপ্ত করার নির্দেশ দেন তিনি।

জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট ফরিদুল ইসলাম চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক পৌর মেয়র মুজিবুর রহমানের সঞ্চালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক সম্পাদক অ্যাডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের উপপ্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আমিনুল ইসলাম।

সমাবেশে বক্তব্য রাখেন উপজেলা সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী, সোহেল সরওয়ার কাজল, আওরঙ্গজেব মাতবর, মহসিন বাবুল, জাহাঙ্গীর কবির চৌধুরী ও আবুল কাশেম।

আরো উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মোস্তাক আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক সালাহ উদ্দিন সিআইপি, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম চৌধুরী রাজা, এম আজিজুর রহমান, অ্যাডভোকেট বদিউল আলম সিকদার, জাফর আলম চৌধুরী, রেজাউল করিম, সংসদ সদস্য সাইমুম সরওয়ার কমল, আশেক উল্লাহ রফিক, জাফর আলম, কানিজ ফাতেমা আহমেদ, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুল হক মুকুল, অ্যাডভোকেট রনজিত দাশ, আবদুর রহমান বদি, কেন্দ্রীয় নেতা শাহজাদা মহিউদ্দিন, মাহফুজুল হায়দার চৌধুরী রোটন, জেলা আওয়ামী লীগ নেতা মাহবুবুর রহমান চৌধুরী, নাজনীন সরওয়ার কাবেরী, অ্যাডভোকেট আব্বাস উদ্দিন, আবদুল খালেক, অ্যাডভোকেট মমতাজ আহমদ, ইউনুস বাঙালি, নুরুল আবছার চেয়ারম্যান, হেলাল উদ্দিন কবির, ইঞ্জিনিয়ার বদিউল আলম, অ্যাডভোকেট তাপস রক্ষিত, আবু হেনা মোস্তফা কামাল, নুসরাত জাহান মুন্নী, ড. নুরুল আবছার, এমএ মনজুর, জিয়া উদ্দিন, সোনা আলী, মকসুদ মিয়া, আমিনুর রশীদ দুলাল, শফিউল আলম চৌধুরী, উম্মে কুলসুম মিনু, মিজানুর রহমান, উপজেলা সভাপতি-সাধারণ সম্পাদকের মধ্যে মো. আবু তালেব, উজ্জ্বল কর, মাহমুদুল করিম মাদু, মহিদুল্লাহ, জসিম উদ্দিন, অ্যাডভোকেট সৈয়দ রেজাউর রহমান, শামসুল আলম মণ্ডল, নুরুল বশর, সিরাজুল ইসলাম বাবলা, সহযোগী সংগঠনের সোহেল আহমদ বাহাদুর, শহীদুল হক সোহেল, রহিম উদ্দিন, কায়সারুল হক জুয়েল, হামিদা তাহের, আয়েশা সিরাজ, তাহমিনা চৌধুরী লুনা, এসএম সাদ্দাম হোসেন, মারুফ আদনান, নুরুল আলম সরকার ও মৌলানা রফিক উদ্দিন আহমদ।

বলরাম/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm