উঠানে খেলছিল শিশু—কিশোর, হঠাৎ বিকট শব্দে আছড়ে পড়ল টিয়ার শেল!

হঠাৎ বিকট শব্দে একটি টিয়ার শেল এসে পড়ল বাড়ির উঠানে। মুহূর্তেই ধোঁয়ায় আছন্ন পুরো এলাকা। আতঙ্কিত আশপাশের মানুষ। ভয়ে অনেকেই হয়ে পড়েন ঘরবন্দী। তবে এতে হতাহতের কোনো ঘটনা ঘটেনি। ঘটনা অনুসন্ধানে গঠন করা হয়েছে তিন সদস্যের কমিটি।

শনিবার (২৩ জুলাই) দুপুরে লালখানবাজার কুসুমবাগ আবাসিক এলাকায় ঘটনাটি ঘটে। টিয়ারশেলটি চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশ (সিএমপি) প্রশিক্ষণ ক্যাম্প থেকে উড়ে এসেছে বলে জানায় স্থানীয়রা।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, লালখানবাজার চানমারি এলাকায় সিএমপির ফায়ারিং প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। কয়েকদিন পরপর চানমারিসহ লালখানবাজার এলাকাজুড়ে বিকট শব্দ হয়। টিয়ার শেলের বিকট শব্দে ভয় ও আতঙ্কিত হয়ে পড়ে এলাকার শিশুরা।

আরও পড়ুন : চট্টগ্রামে বিস্ফোরণের বিকট শব্দে রাস্তায় উপড়ে পড়ল বড় গাছ

আজ (শনিবার) দুপুরে লালখানবাজার কুসুমবাগ আবাসিকের একটি বাড়ির উঠানে খেলা করছিল কয়েকজন শিশু-কিশোর। বেলা সাড়ে ১২টার দিকে বিকট শব্দে একটি টিয়ার শেল উঠানে এসে পড়ে। এসময় ধোঁয়ায় আছন্ন হয়ে যায় এলাকা। ভয়ে খেলা করা শিশুদের মধ্যে একজন আহত হয়। এরপর থেকে এলাকায় আতঙ্ক বিরাজ করছে।

Yakub Group

এ বিষয়ে লালখানবাজার ওয়ার্ড কাউন্সিলর আবুল হাসনাত মো. বেলাল আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, লালখানবাজারের পাশেই হচ্ছে চানমারি। সেখানে সিএমপির প্রশিক্ষণ ফায়ারিং ক্যাম্প হয়। সেখান থেকে অসাবধানতাবশত একটি টিয়ার শেল এসে এখানে পড়ে। আর চানমারিটা যখন হয়েছিল তখন সেখানে তেমন জনবসতি ছিল না। এখন কালের পরিক্রমায় চারপাশে আবাসিক এলাকা হয়ে গেছে। সেখানে যখন প্রশিক্ষণ ফায়ারিং করা হতো তখন প্রায় সময় টিয়ার শেলের শব্দ আসত। এলাকার মানুষ আমাকে অনেকবার বলেছিল। কিন্তু এটা একটি সরকারি স্থাপনা যার কারণে আমি কখনো কিছূ বলিনি। কিন্তু আজ ভুলবশত ফায়ারিং করার সময় একটি টিয়ার শেল এসে একটি বাড়ির উঠানে পড়ে। টিয়ারশেলের গ্যাস তো খুব মারাত্মক। ঘটনাস্থলে এক ঘণ্টা পর গেলেও গ্যাসের গন্ধে সেখানে ঢুকতে পারছিলাম না।

তিনি আরও বলেন, যখন টিয়ার শেলটি পড়েছিল তখন দুপুরবেলা ছিল। যার কারণে দুর্ঘটনা ঘটেনি। সিএমপির সঙ্গে কথা বলে প্রশিক্ষণ ফায়ারিং ক্যাম্পটি অন্য কোথাও সরিয়ে নেওয়া যায় কিনা বলব। যদি সরানো যায় তাহলে এলাকার মানুষের জন্য ভালো হবে।

যোগাযোগ করা হলে সিএমপির অতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার (জনসংযোগ) শাহাদাত হোসেন রাসেল আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, টিয়ার শেলটি যেখানে পড়েছে সেই এলাকাটি পরিদর্শন করা হয়েছে। বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য তিন সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। তদন্ত রিপোর্ট দেখার পর প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এএইচ/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm