বন্য হাতি হত্যা : চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকসহ ২০ জনকে বিবাদী করে হাইকোর্টে রিট

চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বন্য হাতি হত্যা বন্ধে উচ্চ আদালতে রিট করেছেন তিন পরিবেশবাদী। গত দুই সপ্তাহে বৃহত্তর চট্টগ্রামে ৭টি হাতিকে হত্যার পর রোববার হাতি রক্ষায় আইনের শরনাপন্ন হয়েছেন দেশখ্যাত ওয়াইল্ডলাইফ ফটোগ্রাফার ও অ্যাক্টিভিস্ট আদনান আজাদ আসিফ ও ফারজানা ইয়াসমিনসহ তিনজন।

আদালত সূত্রে জানা যায়, রিট আবেদনে হাতি হত্যা বন্ধে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে হাতি হত্যা বন্ধে বিবাদীদের নিষ্ক্রিয়তা কেন বেআইনি ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল চাওয়া হয়েছে।

রিটে পরিবেশ সচিব, বন অধিদপ্তরের মহাপরিচালক, আইন সচিব, চট্টগ্রাম ও কক্সবাজার জেলা প্রশাসকসহ সংশ্লিষ্ট ২০ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: বিদ্যুতের শকে হত্যা—হাতিকে টুকরো টুকরো করে দেওয়া হলো মাটিচাপা 

Thai Food

রিটের পক্ষের আইনজীবী ব্যারিস্টার খান খালিদ আদনান বলেন, চট্টগ্রাম, কক্সবাজারসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় বন্য হাতি মেরে ফেলা হচ্ছে। হাতি হত্যা বন্ধে নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে এবং রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

রিট আবেদনকারী আদনান আজাদ বলেন, বাংলাদেশের বুনো হাতি সংকটাপন্ন অবস্থায় আছে। ক্রমেই এদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে। হাতি চলাচলের করিডোরগুলো গেজেট করে তার বাস্তবায়ন করতে না পারায় ওইসব করিডোরের অনেক জায়গা অবৈধ দখলে চলে গেছে। তাতে হাতির চলাচল বাধাগ্রস্ত হচ্ছে।

আরও পড়ুন: এবার বাঁশখালীর ধানক্ষেতে পাওয়া গেল বন্য হাতি

জীবন হয়ে উঠেছে ঝুঁকিপূর্ণ। হত্যার শিকার হচ্ছে হাতি। তাই করিডোরগুলোর বিষয়ে গেজেট জারি করে সেগুলো সংরক্ষণ করার দাবিতে আইনের শরণাপন্ন হয়েছি। রিটটি বিচারপতি এম ইনায়েতুর রহিম ও বিচারপতি মো. মোস্তাফিজুর রহমানের হাইকোর্ট বেঞ্চে শুনানি হবে।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm