‘ফেসবুকে স্ট্যাটাস’ ছাত্রলীগ নেতার মামলা খেল মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী

মহিলা আওয়ামী লীগ নেত্রী হোসনে আরা পারুলের বিরুদ্ধে মামলা করেছেন বায়েজিদ থানা ছাত্রলীগের আহ্বায়ক ফয়সাল আহমেদ। ফেসবুকে মানহানিকর স্ট্যাটাস দেওয়ায় এ মামলা করেন তিনি।

বুধবার (২৪ আগস্ট) সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক মো. জহিরুল কবির মামলাটি গ্রহণ করে পুলিশ ব্যুারো ইনভেস্টিগেশনকে (পিবিআই) মামলা তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন।

হোসনে আরা পারুল পাঁচলাইশ থানার বিবিরহাট এলাকার খ্রিস্টান সেমেট্টি রোডের আনোয়ার মঞ্জিলের মরহুম নিজামুদ্দৌলার মেয়ে। তিনি ৭ নম্বর ষোলশহর ওয়ার্ড মহিলা লীগ সভাপতি।

বিষয়টি নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পাবলিক প্রসিকিউটর রনি কুমার দে আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, বিভিন্ন সময় ফেসবুকে মানহানিকর স্ট্যাটাস দেওয়ায় বায়েজিদ থানা ছাত্রলীগ আহ্বায়ক ফয়সাল আহমেদ সাইবার ট্রাইব্যুনালে মামলা করেছেন। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে মানহানিকর স্ট্যাটাস আইনের ২৫ (২) এবং ১৯ (১) ধারার অপরাধ। আদালত মামলাটি গ্রহণ করে পিবিআইকে তদন্তের দায়িত্ব দিয়েছেন।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মামলার বাদী ফয়সাল আহমেদ আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, রাজনৈতিকভাবে পারুল আপার সঙ্গে আমার পরিচয় বেশ পুরনো। গত কয়েকদিন ধরে তিনি আমার বিরুদ্ধে ফেসবুকে মানহানিকর পোস্ট করার কারণে আমি বাধ্য হয়ে মামলা করেছি। তবে ওনার সঙ্গে আমার কোনো লেনদেন নেই। রাজনৈতিভাবে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার জন্য তিনি এমন ঘৃণিত কাজ করছেন।

Yakub Group

তিনি বলেন, তিনি আগেও এমন ঘটনা ঘটিয়েছেন। আমাদের কাউন্সিলর মোবারক আলী, জেসমিন পারভিন জেসমিন ও মোশাররফ ভাইয়ের পিএ নূর খান থেকে শুরু করে অনেকের বিরুদ্ধে এমন আপত্তিকর স্ট্যাটাস তিনি ফেসবুকে দিয়েছেন। তাদের কাছ থেকে টাকা পাবে জানিয়ে ফেসবুকে হুমকি-ধমকিও দিয়েছেন। যা এখনো তাঁর ফেসবুক প্রোফাইলে রয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে হোসনে আরা পারুল এ বিষয়ে বলেন, ফয়সাল আমার কাছ থেকে টাকা নিয়ে গিয়ে আমার কাজ করে দেয়নি। উল্টো তার সঙ্গে যোগাযোগের সকল মাধ্যম থেকে আমাকে ব্লক করে দিয়েছে।

আরএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm