ফটিকছড়িতে তিন ইউনিয়নে ভোট হবে না, ১১টিতে বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি

ফটিকছড়িতে ভোটের আগেই ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনে ৩ জন চেয়ারম্যান পদে নির্বাচিত হয়ে গেছেন। ফলে ১৪টি ইউপির মধ্যে ৩টি ইউপিতে চেয়ারম্যান পদে আর ভোট নিতে হবে না।

নির্বাচিত হতে যাওয়া চেয়ারম্যান প্রার্থীরা সবাই আওয়ামী লীগ মনোনীত। এখানে ১১ নভেম্বর দ্বিতীয় ধাপে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

নির্বাচিত চেয়ারম্যানরা হলেন- লেলাং ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান সরোয়ার উদ্দিন চৌধুরী শাহিন, আবদুল্লাহপুর ইউনিয়নের বর্তমান চেয়ারম্যান মো. অহিদুল আলম এবং বক্তপুর ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান চেয়ারম্যান এসএম সোলায়মান।

আরও পড়ুন : আ.লীগ—ছাত্রলীগের একইদিন কর্মসূচি, সংঘাত ঠেকাতে ১৪৪ ধারা ফটিকছড়িতে

নির্বাচন কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, দ্বিতীয় ধাপের ১৪টি ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে মনোনয়নপত্র দাখিল করেন ৬২৫ জন। তাদের মধ্যে চেয়ারম্যান পদে ৫৮ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১১০ জন এবং সদস্য পদে ৪৫৭ প্রার্থী হন। যাচাই-বাছাই ও প্রত্যাহার শেষে চেয়ারম্যান পদে ৩৬ জন, সংরক্ষিত সদস্য পদে ১০৫ জন এবং সদস্য পদে ৪২১ জন প্রার্থী নির্বাচনের জন্য লড়বেন।

এ ধাপের বাকি ১১টি ইউনিয়ন পরিষদে চেয়ারম্যান পদে ৩৩ জনের মধ্যে ২৫ জনই স্বতন্ত্র প্রার্থী। স্বতন্ত্র প্রার্থীদের বড় একটি অংশ আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী। মনোনয়নবঞ্চিতরা বিদ্রোহী হিসেবে নির্বাচন করছেন। ফলে উপজেলায় এবার বিদ্রোহী প্রার্থীর ছড়াছড়ি।

উপজেলা নির্বাচন কর্মকর্তা মো. হুমায়ুন কবির আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, অনুষ্ঠিতব্য নির্বাচনে আওয়ামী লীগের তিন চেয়ারম্যান প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হওয়ার পথে। বাকিগুলোতে নির্বাচন হবে। নির্বাচন নিয়ে আমাদের যাবতীয় কার্যক্রম পুরোদমে চলছে। আশা করছি আমরা একটি সুষ্ঠু নির্বাচন উপহার দিতে পারব।

আক্কাছ/ডিসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm