প্যানেল চেয়ারম্যানের আড়ালে ইয়াবার ব্যবসা করেন সোনা মিয়া, ‘বড়’ চালানসহ ধরা

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যানকে ইয়াবার একটি বড় চালানসহ আটক করা হয়েছে। আটক করা হয়েছে তার ছেলেকেও। এসময় তাদের কাছ থেকে ১৯ হাজার ৮’শ পিস ইয়াবা, ২টি রামদা এবং ১টি ছোরা উদ্ধার করা হয়।

শুক্রবার (৮এপ্রিল) রাতে চকরিয়া উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের উমখালী রামপুর এলাকা থেকে তাদের আটক করে র‌্যাব-১৫।

আটকরা হলেন— সাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আজিজুল হাকিম প্রকাশ সোনা মিয়া (৫০) ও তাঁর ছেলে রহমত উল্লাহ (২৪)।

র‌্যাব-১৫ কক্সবাজারের সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) মো. বিল্লাল উদ্দিন বলেন, দীর্ঘদিন ধরে সাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আজিজুল হাকিম জনপ্রতিনিধির আড়ালে বিভিন্ন ধরনের মাদক ব্যবসা করে আসছিলেন। বিষয়টি আমরা গুরুত্বসহকারে বিবেচনা করে তার গতিবিধির ওপর নজরদারি বৃদ্ধি করি।

আরও পড়ুন: যুবকের ট্রাভেল ব্যাগে ছিল ইয়াবা আর ইয়াবা

তিনি আরও বলেন, এরমধ্যে খবর আসে সাহারবিল ইউনিয়নের প্যানেল চেয়ারম্যানের বাড়িতে বিপুল পরিমাণ ইয়াবা পাচারের জন্য রাখা হয়েছে। খবর পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে শুক্রবার রাতে রামপুরার আজিজুল হাকিমের বসতঘরে অভিযান চালানো হয়। এসময় তার খাটের নিচ থেকে ১৯ হাজার ৮’শ পিস ইয়াবা, ২টি রামদা ও ১টি ছোরা উদ্ধার করা হয়। পরে শনিবার সকালে তাদের চকরিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

যোগাযোগ করা হলে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) চন্দন কুমার চক্রবর্তী আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, র‌্যাব-১৫ এর এক কর্মকর্তা সাহারবিল ইউনিয়ন পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান আজিজুল হাকিম ও তাঁর ছেলে রহমত উল্লাহকে থানায় হস্তান্তর করেছেন। তাঁদের বিরুদ্ধে মাদক ও অস্ত্র আইনে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের চকরিয়া সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

মুকুল/এসআই

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm