পুলিশি অভিযানে হার্ডওয়্যারের চোরাই পণ্য, আটকাল ৫ চোর

নগরে বিপুল পরিমাণ হার্ডওয়্যার পণ্যসহ চোরচক্রের ৫ সদস্যকে আটক করা হয়েছে।

সোমবার (৪ অক্টোবর) ভোরে এনায়েতবাজার মোড়ে পুলিশি চেকপোস্টে মো. মনির হোসেন (২৮) নামের এক যুবককে বিভিন্ন পণ্যসহ সন্দেহজনক আটক করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্যে আটক করা হয় বাকি ৪ জনকে।

আটকরা হলেন- মো. মনির হোসেন (২৮), মো. আলম (৫০), কামাল উদ্দিন মন্জু (৪৫), মো. আলী (৩২) ও মো. সিরাজ (২০)।

আরও পড়ুন: ঋষিমঠ এএসপি দারোগার ঘর—কোনোটিই বাঁচল না চোরের খপ্পর থেকে

পুলিশ জানায়, সম্প্রতি আসকারদীঘির উত্তর পাড়ের একটি ফার্নিচার দোকানের সামনের গোডাউনে চুরির ঘটনা ঘটে। পরে গোডাউন মালিক মো. আবুল কালাম থানায় মামলা করেন।

আটক মো. মনির পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে মো. আবুল কালামের গোডাউনে চুরির কথা স্বীকার করেন। চুরির মালামাল কামাল উদ্দিন মনজু, মো. আলম, মো. আলী ও মো. সিরাজের কাছে বিক্রি করেন বলে জানান।

উদ্ধার করা মালামালের মধ্যে রয়েছে- হাতুড়ি ১৫ পিস, প্লাস ১২ পিস, স্ক্রু ড্রাইভার ছোট-বড় ৩৫টি, হ্যাসবল ৬০ পিস, দরজার ছিটকিনি ৬০ পিস, দরজার কব্জা ছোট ২৫ পিস, রেদ ১৮ পিস, ডালি ৩৬ পিস, হিটার মেশিন ওয়াটার ৮টি, টেপ ২৪টি, তাতাল ৩ পিস, ছোট-বড় তালা ২০ পিস, আড়ি ব্লেডের ফ্রেম ২টি, ব্লেড ১৩টি, ড্রিল মেশিনের বিট ৫০টি, বাটাল ৫টি, কসটেপ ৪০টি, ইলেকট্রিক সুইচ ৭০ পিস, থ্রিপিন ও টুপিন প্লাগ ৭০ পিস, তালা-চাবি ১৭ পিস, হোল্ডার ৪০ পিস, রেগুলেটর ৪ পিস ও ১টি পুরাতন ভাঙা সেলাই মেশিন।

আরও পড়ুন: চুরির মালসহ ৫ যুবককে আটক করল পুলিশ

কোতোয়ালী থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. নেজাম উদ্দীন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আটক আলম হলেন চোরচক্রের দলপ্রধান। বাকিরা তার চোরাই মালামাল বিক্রির সহযোগী। তাদের বিরুদ্ধে থানায় মামলা করা হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, আলমের বিরুদ্ধে থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এছাড়া কালাম ও সিরাজকে আগেও বেশ কয়েকবার চোরাই মালামাল রাখার অপরাধে আটক করা হয়েছিল। এরপরও তারা নিজেদের শোধরাতে পারেননি। বের হয়ে আবার পুরনো কাজ শুরু করেন।

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm