‘পাঠদান বন্ধ’ রেখে—স্কুল চলাকালীন এমপির দুই অনুষ্ঠানে প্রধান শিক্ষক!

রাঙামাটির লংগদুতে এক শিক্ষকের বিরুদ্ধে স্কুলসময়ে এমপির দুই অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে।

অভিযুক্ত ওই শিক্ষকের নাম মো. ওমর ফারুক। তিনি উপজেলার মাইনীমুখ ইউনিয়নের গাঁথাছড়া আদর্শগ্রাম সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক।

বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক সোহেল কবির জানান, আজ (মঙ্গলবার) সকাল থেকে বেলা ১২টা পর্যন্ত প্রধান শিক্ষক স্কুলে আসেননি।

স্কুল সূত্রে জানা যায়, বেলা ১২টা ২৪ মিনিটে প্রধান শিক্ষক স্কুলে আসেন। এর আগে সকাল ১০টায় লংগদু উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন ও ইসলামাবাদ গ্রামের দুটি অনুষ্ঠানে শিক্ষক ওমর ফারুক উপস্থিত ছিলেন।

আরও পড়ুন: স্কুল ছাত্র—ছাত্রীরা বিআরটিসির ১০ বাসে চড়বে শনিবার থেকে

অনুষ্ঠান দুটোতেই প্রধান অতিথি ছিলেন রাঙামাটি জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সংসদ সদস্য দীপংকর তালুকদার।

কোভিড-১৯ এর কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ থাকার পর গত ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয় সরকার। এমন সময় শিক্ষার্থীদের পাঠদানে সহযোগিতা না করে প্রধান শিক্ষক স্কুলসময়ে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে যোগ দেওয়ার কারণে বিভিন্ন প্রশ্ন উঠেছে অভিভাবক ও সচেতন মহলে।

সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় প্রধান শিক্ষক সমিতির সভাপতি সুনীতি চাকমা বলেন, সমিতির পক্ষ থেকে এমপি মহোদয় ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মহোদয়ের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেছি। এ সময় প্রধান শিক্ষক ওমর ফারুক আমাদের সঙ্গেই ছিলেন। তবে এরপর আমরা যে যার স্কুলে চলে যাই। পরে অন্য কোনো অনুষ্ঠানে গেছেন কিনা জানা নেই।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে শিক্ষা কর্মকর্তা ইমাম হোসেন বলেন, আমার জানা মতে প্রধান শিক্ষক ওমর ফারুক ছুটি নেননি। ছুটি ছাড়াই তিনি এমপি মহোদয়ের অনুষ্ঠানে গিয়েছেন। তিনি শিক্ষকতার পাশাপাশি আরও বিভিন্ন কাজে জড়িত বলে শুনেছি। এ বিষয়ে খোঁজখবর নিয়ে মনিটরিং জোরদার করা হবে।

অভিযোগের বিষয়ে জানতে প্রধান শিক্ষক ওমর ফারুকের মুঠোফোনের দুটি নম্বরে একাধিকবার কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

আরমান/আরবি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm