পর্দা উঠছে টি—টুয়েন্টি বিশ্বকাপের, আজই মাঠে নামছে বাংলাদেশ

পর্দা উঠছে টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ ক্রিকেটের। প্রথম দিনেই আজ (রোববার) মাঠে নামছে বাংলাদেশ। বাছাই পর্বে লাল সবুজের প্রথম প্রতিপক্ষ স্কটল্যান্ড। বিশ্বকাপের প্রথম পর্বে মাঠে নামার আগে বাংলাদেশ দলের একমাত্র লক্ষ্য সুপার টুয়েলভ তথা মূল পর্ব নিশ্চিত করা।

সে লক্ষ্যে স্কটল্যান্ডের বিপক্ষে জয় দিয়েই শুরু করতে চায় টাইগাররা। এরপরের দুই প্রতিপক্ষ স্বাগতিক ওমান এবং বিশ্বকাপে নতুন আসা পাপুয়া নিউগিনি। ওমানের রজধানী মাসকাটের ‘ওমান ক্রিকেট একাডেমি গ্রাউন্ডে’ বাংলাদেশ সময় রাত ৮টায় এবারের বিশ্বকাপে নিজেদের প্রথম ম্যাচে স্কটল্যান্ডের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ।

২০০৭ সালে প্রথম বিশ্বকাপের পর টি-টোয়েন্টির বিশ্ব আসরের মূল পর্বে কোনো ম্যাচই জিততে পারেনি বাংলাদেশ। ব্যর্থতার বৃত্ত ভেঙে এবার বেরোতে চায় দল। তবে বিশ্বকাপের আগে দুটি অফিসিয়াল প্রস্তুতি ম্যাচে হারতে হয়েছে শ্রীলঙ্কা ও আয়ারল্যান্ডের কাছে।

আরও পড়ুন: আগের বিয়েই বৈধ, ক্রিকেটার নাসির—তামিমার বিয়ে অবৈধ

সেই ম্যাচগুলিতে অবশ্য পুরো দল পায়নি বাংলাদেশ। পিঠের অস্বস্তির কারণে খেলেননি অধিনায়ক নিজে। সাকিব আল হাসান ছিলেন আইপিএলে। বাছাই পর্ব শুরুর আগে দলে ফিরে এসেছেন আইপিএল খেলা সাকিব আল হাসান এবং মোস্তাফিজুর রহমান। অধিনায়কত্বও করবেন নিয়মিত অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

ম্যাচের একদিন আগে অফিসিয়াল সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ ক্যাপ্টেন বলেন, আমরা প্রস্তুতি ম্যাচ দুটি হেরেছি, তবে আমার মনে হয় ওটা কোনো প্রভাব ফেলবে না। আগামীকালের ম্যাচের জন্য আমরা প্রস্তুত। দলের আত্মবিশ্বাস আগের মতোই আছে। আশা করি, আমরা আমাদের সেরা ক্রিকেটটাই খেলতে পারব।

আরও পড়ুন: ‘শাস্তি’—ক্ষমা চেয়েও পার পেলেন না সাকিব

Thai Food

রিয়াদ বলেন, আমরা জানি, প্রস্তুতি ম্যাচে আমরা কোন জায়গায় ভুল করেছি। আমাদের বেশ কয়েকজন খেলোয়াড় খেলেনি এবং আমার মনে হয়, প্রস্তুতি ম্যাচের ফলাফল আমাদের ওপর মানসিকভাবে প্রভাব ফেলবে না। আমরা খুবই ইতিবাচক আছি।

আজকের আগে দুই দল ২০ ওভারের ক্রিকেটে একবারই মুখোমুখি হয়েছে। ২০১২ সালে সেই ম্যাচে স্কটিশদের সঙ্গে সমানতালে লড়াই করতে পারেনি বাংলাদেশ। হেরেছিল ৩৪ রানের ব্যবধানে। এবারও স্কটল্যান্ড দলে সেই ম্যাচে জয়ী দলের অনেকেই আছেন। এখন তারা আরও পরিণত ও অভিজ্ঞ। দলে যোগ হয়েছে আরও বেশ কজন কার্যকর ক্রিকেটার।

টি-টোয়েন্টিতে তারা বিপজ্জনক দল। ম্যাচ জেতানোর মতো ক্রিকেটার আছে তাদের কয়েকজন। রিচি বেরিংটন, কাইল কোয়েটজার, জর্জ মানজি, ক্যালাম ম্যাকলাউডদের নিয়ে গড়া ব্যাটিং যথেষ্টই শক্তিশালী। তাদের বোলিং গভীরতাও অনেক। ফিল্ডিং তো বরাবরই দুর্দান্ত। স্কটল্যাণ্ডের প্রস্তুতিও হয়েছে দারুণ।

মাসখানেক আগে থেকেই তারা ওমান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতে অনুশীলন করছে। বিশ্বকাপের মাঠেই এই মাসে ওমানের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজ জিতেছে ৩-০ ব্যবধানে। আমিরাতে চারটি প্রস্তুতি টি-টোয়েন্টি খেলে জিতেছে সবকটিই।

আরও পড়ুন: সৌরভের অনুরোধেই সম্মতি, ভারতের প্রধান কোচ হচ্ছেন দ্রাবিড়

তবে এবার ছেড়ে কথা বলবে না দেশের মাঠে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে সিরিজ জিতে উড়তে থাকা টাইগাররাও। তেমনটিই জানালেন মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। বাছাই পর্ব নয়, মূল পর্বেই চোখ রেখে মাহমুদউল্লাহ এগোতে চান অনেক দূর। প্রথম ম্যাচ, প্রথম পর্ব পার হয়ে মূল পর্বেও এবার নিজেদের ছাড়িয়ে যেতে চান অধিনায়ক।

তিনি বলেন, আমরা আপাতত প্রথম রাউন্ড নিয়েই চিন্তা করছি। এই রাউন্ডে ভালো ক্রিকেট খেলে সবগুলা ম্যাচ জিতে যদি পরের রাউন্ডে যেতে পারি, তখন আরও ভাবব। একটা কথা বলেছিলাম, বেশ কয়েকটা ধাপ পার করতে হবে আমাদের। কিছু প্রতিবন্ধকতা আছে, যা আমরা ভাঙতে চাই। যত বেশি সম্ভব ম্যাচ জিততে চাই। এ ব্যাপারগুলো আমাদের মাথায় আছে এবং আমরা ধাপে ধাপে এগোতে চাই।

এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm