নৌকা না পেয়ে—কলাগাছে প্রতিবাদ, মহাসড়কে যানজট

দলীয় প্রতীক না পেয়ে সড়কের অলিগলিতে কলাগাছ লাগিয়ে প্রতিবাদ-বিক্ষোভ করছেন কক্সবাজারের চকরিয়ার বেশকিছু প্রার্থীর কর্মী-সমর্থকরা। তারা পাহাড় থেকে শত শত কলা গাছ কেটে এনে সড়কে লাগিয়ে দেন। কলাগাছ নিয়ে মিছিলও করেন তারা।

তবে এধরনের প্রতিবাদ নিয়ে স্থানীয়দের মাঝে বিরূপ প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। পাহাড় থেকে কলাগাছ কেটে আনায় বিনষ্ট হচ্ছে প্রাকৃতিক পরিবেশ। এতে হাতিসহ অন্যান্য প্রাণীর খাদ্য ঘাটতি দেখা দিতে পারে বলেও শঙ্কা করছেন পরিবেশবাদী নেতারা।

আগামী ২৮ নভেম্বর কক্সবাজারের চকরিয়া-পেকুয়ার ১৬টি ইউনিয়ন পরিষদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড মঙ্গলবার (২৬ অক্টোবর) দুপুরে চকরিয়া ও পেকুয়ার ১৬ জন নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর নাম ঘোষণা করেন।

কিন্তু কেন্দ্রের এই নির্দেশনায় সন্তুষ্ট হতে না পেরে সড়ক ও অলিগলিতে কলাগাছ লাগিয়ে বিক্ষোভ করেছে কর্মী-সমর্থকরা।

আরও পড়ুন: চকরিয়ার ১০ ও পেকুয়ার ৬ প্রার্থী পেলেন ‘নৌকা’

Thai Food

জানা গেছে, চকরিয়া উপজেলার লক্ষ্যারচর ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন দেওয়া হয়েছে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন মো. আওরঙ্গজেব বুলেটকে। কিন্তু এর বিরোধিতা করে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় সড়কে কলাগাছ লাগিয়ে বিক্ষোভ করেছে সাইকুল ইসলামের কর্মী-সমর্থকরা। এসময় চট্টগ্রাম-কক্সবাজার মহাসড়কে তীব্র যানজট সৃষ্টি হয়। ভোগান্তিতে পড়ে সাধারণ মানুষ।

অপরদিকে কাকারা ইউনিয়নে নৌকা প্রতীকের মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শওকত ওসমান। কিন্তু এর বিরোধিতা করে সড়কে ও অলিগলিতে কলাগাছ লাগিয়ে প্রতিবাদ জানিয়ে বিক্ষোভ করেছে মনোনয়নবঞ্চিত সাহাবউদ্দিনের কর্মী-সমর্থকরা। এসময় তার কর্মী-সমর্থকরা পাহাড় থেকে কলাগাছ কেটে নিয়ে আসে।

আরও পড়ুন: অর্জুন জীবিত—আদালতেই প্রমাণ মিলল, নির্বাচনে অংশ নিতে বাধা নেই

স্থানীয় আওয়ামী লীগ সূত্রে জানা গেছে, আওয়ামী লীগের তৃণমূল নেতা-কর্মীদের মতামতের ভিত্তিতে কেন্দ্রে প্রার্থীদের নাম পাঠানো হয়। কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের মনোনয়ন বোর্ড সব প্রার্থীর তথ্য যাচাই-বাছাই করে নৌকার মনোনয়ন দিয়েছে।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে চকরিয়া উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান গিয়াস উদ্দিন চৌধুরী আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আওয়ামী লীগের সভানেত্রী ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাসহ মনোনয়ন বোর্ডের সদস্যরা সব প্রার্থীর বায়োডাটা দেখে নৌকা প্রতীকে মনোনয়ন দিয়েছেন। এর বিরুদ্ধে যারা বিরোধিতা করছেন তারা আওয়ামী লীগের হতে পারে না। এটা শোভনীয় নয়।

মুকুল/এসি
আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm