‘নির্মম’—টাকা ফেরতের বদলে কুপিয়ে রক্ত ঝরালো এক লোকের

মিরসরাইয়ের নাজিম উদ্দিন (৪২) নামে একজনক কুপিয়ে গুরুতর আহত করা হয়েছে। সবুজ নামের একজন তাঁকে কুপিয়ে জখম করে।

গুরুতর আহত নাজিমকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২২ জুলাই) ভোর ৫টায় উপজেলার খৈয়াছরা ইউনিয়নের আবুল কাশেম বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। নাজিম ওই স্কুলের নৈশ প্রহরী। ঘটনার পরপরই পালিয়ে গেছে সবুজ।

স্কুলের সহকারী প্রধান শিক্ষক মোস্তাফিজুর রহমান স্বপন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ‘নাজিম খৈয়াছরা ইউনিয়নের ৭নম্বর ওয়ার্ডের দুয়ারু এলাকার শাহজাহান মেম্বার বাড়ির আবুল হোসেনের ছেলে। একটা ছাগল কিনতে সবুজ নামের একজনকে ৫ হাজার টাকা বিকাশ করেন নৈশ প্রহরী নাজিম। কিন্তু সবুজ ছাগল না আনায় নাজিম টাকা ফেরত চাইলে এ নিয়ে দু’জনের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়। এরই জেরে বৃহস্পতিবার সকালে নাজিম যখন ফজরের নামাজ পড়ে তার রুমে ঘুমাচ্ছিলেন সুযোগ বুঝে সবুজ তাকে কুপিয়ে আহত করে। এ সময় সবুজ প্রাণে বাঁচতে পার্শ্ববর্তী মিরসরাই ফিলিং স্টেশনে আশ্রয় নেয়।’

তিনি জানান, সবুজের বাড়ি গায়বান্দায়। সে মিরসরাইয়ে শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। সবুজ এবং নাজিমের মধ্যে ভালো সম্পর্ক ছিল। নাজিমকে মালিক বলে সম্বোধন করতো সবুজ।

মিরসরাই উপজেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি এসএম সরোয়ার উদ্দিন বলেন, ‘আহত নৈশ প্রহরী নাজিমকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নেওয়া হয়েছে। সেখান থেকে তাকে ঢাকা নিয়ে যাওয়া হবে।’

মিরসরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মজিবুর রহমান আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ‘এ ঘটনায় অভিযোগ পেয়েছি। বিষয়টি আমরা তদন্ত করছি। ঘটনার পর থেকে সবুজ পলাতক। তাকে আটকের চেষ্টা চলছে।’

আজিজ/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm