পুতিয়া গ্রুপের দুই সদস্যের কাছে মিলল নিজস্ব পোশাক—৮ অস্ত্র

টেকনাফে অস্ত্র-গুলিসহ পুতিয়া গ্রুপের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‌্যাব-১৫। এ সময় তাদের কাছ থেকে ৮টি অস্ত্র, ১৮ রাউন্ড গুলি ও গ্রুপের নিজস্ব পোশাক উদ্ধার করা হয়।

বুধবার (২ মার্চ) ভোরে টেকনাফের লেদা ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকা থেকে গোপন সংবাদে তাদের আটক করা হয়।

আরও পড়ুন: অস্ত্র দিয়ে বন্ধুকে ফাঁসাতে গিয়ে পাতানো ফাঁদে আটকালেন নিজেই

আজ (বুধবার) সকাল ১১টায় আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে কক্সবাজার র্যাব-১৫ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল খায়রুল ইসলাম সরকার এসব তথ্য জানান।

Yakub Group

আটকরা হলেন— টেকনাফের হ্নীলা ইউনিয়নের পূর্ব সিকদারপাড়া এলাকার মৃত ইদ্রিসের ছেলে মো. রমিজ (২৭) ও নয়াপাড়া রোহিঙ্গা ক্যাম্পের ই-ব্লকের বাসিন্দা মৃত জহিরের ছেলে মো. শফিক (৩০)।

আরও পড়ুন: পূর্ব কোদালা থেকে সন্ত্রাসী ইয়াকুবকে ধরল র‌্যাব, অস্ত্র উদ্ধার

র‌্যাব সূত্রে জানা যায়, ১৯ ফেব্রুয়াররি পুতিয়া গ্রুপের সদস্য খায়রুল আমিনকে আটকের পর নজরদারি ও টহল জোরদার করা হয়। আজ (বুধবার) ভোরে টেকনাফের লেদা ক্যাম্প সংলগ্ন এলাকা থেকে গোপন সংবাদে অস্ত্রসহ দুজনকে আটক করা হয়। পরে তাদের কাছ থেকে ৬টি একনলা বন্দুক, ১টি থ্রি কোয়াটার গান, ১টি ওয়ান শুটারগান, ১৮ রাউন্ড তাজা গুলি-কার্তুজ ও ৫ সেট গ্রুপের পোশাক উদ্ধার করা হয়।

্যাব-১৫ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল খায়রুল ইসলাম সরকার জানান, প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে আটকরা রোহিঙ্গাদের শীর্ষ ডাকাত পুতিয়া গ্রুপের সদস্য বলে স্বীকার করে। তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের পর টেকনাফ থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

বলরাম/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm