সাফারি পার্কের প্রাচীর রক্ষার অভিযানে ১০ সেলু মেশিনের সঙ্গে ধ্বংস হাজার ফুট পাইপ

চকরিয়ায় অবৈধভাবে বালু উত্তোলনের অভিযোগে পেয়ে অভিযান চালিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। অভিযানে ১০টি সেলু মেশিন ও ১ হাজার ফুট পাইপ জব্দ করা হয়। পরে ধ্বংস করা হয় জব্দকৃত মালামালগুলো।

বুধবার (২৩ মার্চ) সকাল ১০টা থেকে বিকাল পর্যন্ত বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক সংলগ্ন দাঙ্গাঘাট এলাকায় এ অভিযান চালানো হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত-উজ জ্জামান।

জানা গেছে, ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) রাহাত-উজ জ্জামানের নির্দেশে বন বিভাগের কর্মকর্তা-কর্মচারীরা প্রায় ১০টি সেলু মেশিন ও ১ হাজার ফুট পাইপ ধ্বংস করেন।

আরও পড়ুন: পেকুয়ায় বালু ফেলে ধ্বংস করা হচ্ছে প্যারাবন

এ বিষয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, ভূমিদস্যু চক্র বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক সংলগ্ন দাঙ্গাঘাট এলাকা থেকে সেলু মেশিন বসিয়ে অবৈধভাবে বালি উত্তোলন করে আসছিল। এতে পার্কের প্রাচীরসহ নানা স্থাপনা নষ্ট হয়ে যাচ্ছিল। বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানানো হয়। এরপর সেখানে অভিযান পরিচালনা করা হয়।

চকরিয়া সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত-উজ জ্জামান বলেন, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্ক সংলগ্ন দাঙ্গাঘাট এলাকায় ভূমিদস্যুরা পাহাড় থেকে বালি উত্তোলন করে আসছিল। এতে পার্কের সীমানা প্রাচীরসহ বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থাপনা ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। অভিযোগ পেয়ে আজ (বুধবার) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত ওই এলাকায় অভিযান পরিচালনা করা হয়। এসময় বালি উত্তোলনে ব্যবহৃত ১০টি সেলু মেশিন ও ১ হাজার ফুট পাইপ জব্দ করে ধ্বংস করা হয়েছে।

মুকুল/আরবি

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm