গুলি ছুঁড়ে পালাতে গিয়ে ধরা খেল ২ ডাকাত, পিকআপভর্তি গরুসহ অস্ত্র উদ্ধার

পেকুয়ায় আন্তঃজেলা ডাকাত দলের দুসদস্যকে আটক করেছে পুলিশ। এসময় তাদের কাছ থেকে একটি মিনি পিকআপ, চারটি গরু, গুলি ও একটি ওয়ান শুটারগানসহ আরও বেশ কিছু দেশি অস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (২০ সেপ্টেম্বর) রাত ৩টার দিকে উপজেলার বারবাকিয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের পাহাড়িয়া এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

আটকরা হলেন- কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের আমানপাড়ার মো.কায়কোবাদের ছেলে মো.শোয়াইব (৪২) এবং চকরিয়া পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের কাহারিয়াঘোনার আবুল কাশেম প্রকাশ চোরা কাশেমের ছেলে মো. জাহেদ (২৪)।

তবে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে আর ৪/৫ জন ডাকাত পালিয়ে যায় বলে জানায় স্থানীয়রা।

আরও পড়ুন : লতিফপুরে মধ্যরাত থেকে ৭ ঘণ্টার অভিযান শেষ হলো ৫ ডাকাত গ্রেপ্তারে

Yakub Group

পেকুয়া থানার অপারেশন অফিসার এসআই মোজাম্মেল হোসেন বলেন, মঙ্গলবার রাত ৩টার দিকে বারবাকিয়া ইউনিয়নের পাহাড়িয়া এলাকা থেকে একটি মিনি পিকআপে করে বেশ কয়েকটি গরু ডাকাতি লুট করে নিয়ে যাচ্ছিল। খব পেয়ে টহল পুলিশ টিম ঘটনাস্থলে গেলে দুষ্কৃতিকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়ে। তবে পুলিশের টহল টিমের সদস্যরা একজনকে জাপটে ধরে পাশের বিলে পড়ে যায়। এসময় ডাকাত দলের অন্যান্য সদস্যরা গুলি ছুঁড়তে ছুঁড়তে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে।

এসআই আরও বলেন, বিষয়টি থানায় অবহিত করলে আরও পুলিশ ঘটনাস্থলে আসে। পরে স্থানীয় লোকজনও পুলিশের সঙ্গে যোগ দেয়। এসময় পালিয়ে যাওয়ার সময় আরও একজনকে আটক করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, আটকরা সবাই আন্তঃজেলা ডাকাত দলের সদস্য। তারা নিয়মিত গরু, মহিষ, ছাগল, গাড়িসহ বিভিন্ন দামি জিনিস ডাকাত করে। এ দলের সদস্যরা দক্ষিণ চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলায় গিয়ে এসব অপকর্ম করে।

পেকুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ফরহাদ আলী বলেন, আটকদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। প্রাথমিকভাবে তাদের কাছ থেকে বেশকিছু তথ্য পাওয়া গেছে। আটকদের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে।

এমকেডি/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm