সাজা কাঁধে নিয়ে ছদ্মবেশে ৮ বছর লুকিয়েও ধরা খেল পুলিশের হাতে

মামলা কাঁধে নিয়ে পালিয়ে ছিল দীর্ঘদিন। আদালতের যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ কাঁধে নিয়ে নানা ছদ্মবেশে ৮ বছর পালিয়েও শেষ রক্ষা হলো না। বাধ সাজলো বেরসিক পুলিশ। শেষমেশ ধরা পড়ল চন্দনাইশ থানা পুলিশের হাতে।

রোববার (২৩ জানুয়ারি) রাতে মো. মজিবুর রহমান নামের যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ওই আসামিকে গ্রেপ্তার করে চন্দনাইশ থানা পুলিশ। পৃথক অভিযানে গ্রেপ্তার করা হয় আরও দুজনকে।

গ্রেপ্তাররা হলেন- চন্দনাইশ উপজেলার উত্তর হাশিমপুর গ্রামের মৃত হাবিবুর রহমানের ছেলে মো. মজিবুর রহমান, একই উপজেলার কাঞ্চনাবাদ ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের এলাহাবাদ কাউয়ার বাড়ির ফোরক আহাম্মদের ছেলে সোনা মিয়া, হাটহাজারী উপজেলার ২ নম্বর ধলই ইউনিয়নের কাটিরহাট গোলাপ শাহ ফকির বাড়ির মো. ফারুকের ছেলে মো. নয়ন।

আরও পড়ুন: রক্তাক্ত বদরখালী সমিতি—এবার কোপানো হলো ৫ পুলিশকে

গ্রেপ্তার মজিবুর রহমানের বিরুদ্ধে সাতকানিয়া থানার একটি হত্যা মামলা রয়েছে। এ মামলায় আদালত তাকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

এদিকে অপর এক অভিযানে উপজেলার কাঞ্চনাবাদের রৌশনহাট বাজার থেকে ৫১৮ পিস ইয়াবা ও ৯০ গ্রাম গাঁজাসহ সোনা মিয়া (৪৫) এবং মো. নয়ন (১৬) নামে এক কিশোরকে চুরি করা ২ লাখ ৮৭ হাজার টাকাসহ গ্রেপ্তার করা হয়।

যোগাযোগ করা হলে চন্দনাইশ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. আনোয়ার হোসেন আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, পৃথক অভিযানে যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত আসামিসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গ্রেপ্তারদের আজ (সোমবার) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm