দ্বিতীয়বার ধর্ষণের পর মুখ খুলল প্রমি, আটকে গেল বুলু

দশ বছরের শিশু প্রমি (ছদ্মনাম)। শহরে বেড়াতে এসেছিল কর্মজীবী বাবা-মার কাছে। প্রতিদিনের মতো তারা চাকরিতে চলে যান। ঘরে একা থাকার সুযোগে প্রতিবেশী বুলবুল উদ্দিন সোনাল ওরফে ‍বুলু প্রমিকে ধর্ষণ করেন টানা দুদিন!

ধর্ষণের পর ঘটনা কাউকে না বলতে ভয়ও দেখায় বুলু। প্রথমদিন প্রমি ভয়ে মুখ না খুললেও পরদিন সে মা-বাবাকে সব খুলে বলে।

বৃহস্পতিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) রাতে নগরের মনসুরাবাদ এলাকা থেকে বুলবুল উদ্দিন সোনাল ওরফে বুলুকে আটক করে চান্দগাঁও থানা পুলিশ।

আরও পড়ুন: ‘লাশ উদ্ধারের’ ৫ মাস পর জানা গেল ধর্ষণের পরই হত্যা করা হয় শিশুকে

Yakub Group

আটক বুলু (৫২) নওগাঁ জেলার এনায়েতপুর বাকপাড়া এলাকার মৃত কলি সোনার ছেলে। তিনি চান্দগাঁও হামিদচর এলাকায় বসবাস করছিলেন।

পুলিশ জানায়, ধর্ষণের শিকার প্রমি (ছদ্মনাম) বাবা পেশায় একজন রিকশাচালক। মা পোশাক শ্রমিক। তাদের একমাত্র সন্তান থাকে গ্রামের বাড়িতে। কিছুদিন আগে গ্রাম থেকে বেড়াতে আসে শহরের বাসায়। প্রতিদিনের মতো তার বাবা-মা কাজে চলে যান। বাসায় প্রমি একা থাকার সুযোগ নিয়ে টানা দু’দিন জোরপূর্বক ধর্ষণ করেন প্রতিবেশী বুলবুল উদ্দিন সোনাল ওরফে বুলু।

প্রথমদিন প্রমি ভয়ে বাবা-মাকে কিছু বলেনি। কিন্তু দ্বিতীয় দিন আবার ধর্ষণ করলে বিষয়টি সে বাবা-মাকে জানায়। পরে বিষয়টি জানাজানি হলে পালিয়ে যায় অভিযুক্ত বুলবুল। তার বিরুদ্ধে চান্দগাঁও থানায় ধর্ষণের মামলা করেন শিশুটির বাবা।

আরও পড়ুন: ‘ব্যাংকারের কাণ্ড’ হোটেলে প্রেমিকা ধর্ষণের চেষ্টা—ইসলামী ব্যাংক কর্মকর্তা গ্রেফতার

জানতে চাইলে চান্দগাঁও থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাঈনুর রহমান আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, চান্দগাঁওয়ের হামিদচর এলাকায় ১০ বছরের এক শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগে বুলবুল উদ্দিন সোনাল নামে এক ব্যক্তিকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

ওসি আরও বলেন, বাবা-মা ঘরে না থাকার সুযোগে শিশুটিকে টানা দুদিন ধর্ষণ করে বুলু। অভিযুক্তের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণ মামলার পর নগরের মনসুরাবাদ এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

এএইচ/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm