দেওয়ানবাজারে বাসার তালা ভেঙে চুরি, পুলিশের জালে ২ তরুণী

নগরের দেওয়ানবাজার নিরাপদ হাউজিং সোসাইটির বাসিন্দা ডালিম মহাজন শুক্রবার (২৪ জুন) বিকেলে তার স্ত্রী সন্তানদের নিয়ে বাসা থেকে বের হয়ে বাণিজ্যমেলায় ঘুরতে যান। পরে ৮টার দিকে বাসায় ফিরে দেখেন দরজা খোলা। ঘরের ভেতর ঢুকে দেখেন মালামাল এলোমেলো পড়ে আছে। চোখ ঘুরাতেই দেখেন, স্টিলের আলমারিতে রাখা স্বর্ণালংকার ও মূল্যবান জিনিসপত্রের কিছুই নেই!

সেই চোরচক্রের দুই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সেই সঙ্গে চুরির সরঞ্জাম ও চুরি হওয়া মালামালও উদ্ধার করেছে বাকলিয়া থানা পুলিশ।

শনিবার (২৫ জুন) রাতে বিভিন্ন স্থান অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়। এর আগে ঘটনাস্থলের আশপাশের বিভিন্ন এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করে পুলিশ।

আরও পড়ুন: ৪ চোরে ঐক্যজোট—৩ জন করে চুরি, আরেকজন স্বর্ণ গলিয়ে বানায় বার

গ্রেপ্তাররা হলেন- চান্দগাঁও থানার খাজা সড়ক এলাকার মো. খোরশেদের স্ত্রী তাসনুর বেগম (১৯) ও মাদারীপুর জেলার কালকিনী থানার মিনাজাদী গোপালপুর গ্রামের জমির উদ্দীনের মেয়ে তাসলিমা বেগম (২১)।

Yakub Group

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ২৪ জুন বিকেলে দেওয়ানবাজার নিরাপদ হাউজিং সোসাইটির বাসিন্দা ডালিম মহাজন পরিবার নিয়ে বাণিজ্যমেলায় ঘুরতে যান। রাত ৮টার দিকে ফিরে দেখেন বাসা থেকে স্বর্ণালংকার, মোবাইলসহ বিভিন্ন মালামাল চুরি হয়ে গেছে। এরপর তিনি বাকলিয়া থানায় গিয়ে এজাহার দায়ের করেন। এরপর পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সংগ্রহ করে আশপাশের এলাকার সিসিটিভি ফুটেজ। পরে এসব ফুটেজ পর্যালোচনা করে জড়িতদের ধরতে বিভিন্ন স্থানে চালানো হয় অভিযান।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে বাকলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আবদুর রহিম আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, শুক্রবার (২৪ জুন) বিকেলে দেওয়ানবাজারের একটি বাসায় চুরির ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় জড়িত দুই নারীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। এ সময় তাদের কাছ থেকে চোরাই কাজে ব্যবহৃত বিভিন্ন সরঞ্জাম ও চুরি হওয়া মালামাল উদ্ধার করা হয়।

ওসি আরও বলেন, গ্রেপ্তার দুই নারীকে আজ (রোববার) আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

আরবি/আলোকিত চট্টগ্রাম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm