ট্রেনের ছাদে ৩ কিশোর—১ জন লাশ, রেলের কর্তাদের দায় নিয়ে প্রশ্ন

সোনার বাংলা ট্রেনের ছাদে ভ্রমণের সময় ১ কিশোর নিহত ও ২ জন আহতের ঘটনায় চট্টগ্রাম রেলস্টেশন কর্মকর্তাদের দায়িত্ব নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। এ ঘটনার পর রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ অপমৃত্যু মামলা করেই দায় সেরেছে।

রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) কুমিল্লার লাকসামের লালামাই বাঘমারা এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

নিরাপদ যান হিসেবে ট্রেন ভ্রমণে আগ্রহ বেশি যাত্রীদের। তবে আন্তঃনগর ট্রেন সোনার বাংলার ছাদ থেকে পড়ে ১ কিশোর নিহত ও ২ জন আহতের ঘটনায় যাত্রীদের নিরাপত্তার বিষয়টি আবারও আলোচনায় উঠে আসে।

আরও পড়ুন : ট্রেনের ছাদে চেপে ঘুরে বেড়ায় ৩ কিশোর, সোনার বাংলায় সর্বনাশ

নিয়ম অনুযায়ী ট্রেন স্টেশন ছাড়ার আগে স্টেশন ম্যানেজোর, মাস্টার, রেলওয়ে পুলিশ, নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্য যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার কথা। এছাড়া পিএসএম (প্লাটফর্ম স্টেশন মাস্টার) ও গার্ড ট্রেনের সব বগি চেকিং শেষে গার্ডের সংকেতে ট্রেন প্ল্যাটফর্ম ছেড়ে যায়। তবে এতসব নিয়মের কথা বলা হলেও রোববার (১১ সেপ্টেম্বর) বিকেল ৫টায় চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়া আন্তঃনগর ট্রেন সোনার বাংলার ছাদ থেকে পড়ে ১ জন নিহত ও ২ জন আহত হয়।

Yakub Group

কুমিল্লার লাকসামের আলিশহর লালমাই বাঘমারা এলাকা থেকে সাইমন নামের এক কিশোরের লাশ উদ্ধার করা হয়। এছাড়া চাঁদ ও পলাশ নামের ২ জন আহত কিশোরকে উদ্ধার করে লাকসাম রেলওয়ে পুলিশ। ওই তিন কিশোর কিশোরগঞ্জের বাসস্টেশন বস্তিতে বসবাস করত।

এদিকে প্রশ্ন উঠেছে, কয়েকটি নিরাপত্তা ও চেকিং পর্ব শেষে ট্রেন স্টেশন ছাড়ার নিয়ম থাকা সত্ত্বেও তিন কিশোর কীভাবে ছাদে উঠল? সেদিন তিন কিশোর ছাদে উঠে চট্টগ্রাম রেলস্টেশন থেকে লাকসাম পর্যন্ত চলে যায়।

এ ঘটনায় পর চট্টগ্রাম রেলস্টেশন ম্যানেজার, মাস্টার, রেলওয়ে নিরাপত্তা বাহিনী, রেলওয়ে পুলিশ, পিএসএম ও গার্ডের দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ উঠেছে। তবে দায়িত্বে অবহেলার জন্য কর্তব্যরতদের জবাবদিহিতার আওতায় আনা হয়নি। অপমৃত্যু মামলা করেই দায় সেরেছে রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ।

এ ঘটনায় কারো কোনো গাফিলতি নেই দাবি করে চট্টগ্রাম রেলস্টেশন ম্যানেজার রতন কুমার চৌধুরী আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, হয়ত ট্রেন ছাড়ার আগমুহূর্তে তিন কিশোর ছাদে উঠে পড়ে। এতে গাফিলতি ছিল না। কারণ ট্রেন ছাড়ার সময় অন্য পাশ থেকে কেউ যদি ছাদে উঠে পড়ে তা দেখা যায় না।

আবার স্টেশন মাস্টার জাফর আলম বলেন, তিন কিশোর চট্টগ্রাম রেল দস্টেশন থেকেই উঠেনি।

এ বিষয়র কথা বলতে বিভাগীয় পরিবহন কর্মকর্তা তারেক মু. ইমরানের মুঠোফোনে একাধিক কল করা হলেও তিনি রিসিভ করেননি।

সিএম/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।