ঝড়ের কবলে স্পিডবোট: ৯৯৯-এ উদ্ধার ৫ যাত্রী

সাগরের বুকে দিকভ্রান্ত স্পিডবোটের পাঁচ যাত্রীর প্রাণ বাঁচাল ‘৯৯৯’।

রোববার (৬ জুন) সকালে সন্দ্বীপ থেকে যখন সীতাকুণ্ডের কুমিরা ঘাটের উদ্দেশ্যে স্পিডবোটটি পাঁচ যাত্রী নিয়ে রওনা দেয় তখনও আবহাওয়া স্বাভাবিক ছিল। কিন্তু মাঝপথে হঠাৎ রূপ পাল্টায় প্রকৃতি। ঝড়ো বাতাসের সঙ্গে উত্তাল হতে থাকে সাগর। কিছুক্ষণ পর শুরু হয় ঝড়।

ধীরে ধীরে ঝড় বাড়তে থাকলে দিশেহারা হয়ে পড়েন স্পিডবোটের চালক। বোটটি যাতে না ডুবে সেজন্য ঝড়ের সাথে রীতিমতো ‘যুদ্ধ’ করে যাচ্ছিলেন চালক। তবে না ডুবলেও সাগরের উত্তাল ঢেউয়ে খেই হারিয়ে এদিক-ওদিক ভাসতে থাকে স্পিডবোটটি।

একসময় ঝড় থেমে গেলেও গন্তব্যের পথ ভুলে যান স্পিডবোট চালক। চারিদিক তাকিয়েও নিজেদের যাওয়া রাস্তা বের করতে পারেননি তিনি।

এভাবে কিছু সময় অতিবাহিত হওয়ার পর মাহমুদুল নামে এক স্পিডবোট যাত্রী কল দেন ৯৯৯ নম্বরে। তাদের বিপদের কথা শুনে সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি কোস্টগার্ড হেডকোয়ার্টার্সে এবং চট্টগ্রাম কোস্টগার্ড নিয়ন্ত্রণ কক্ষে জানান ৯৯৯ এর অপারেটর।

এমন খবর পেয়ে সন্দ্বীপ কোর্স্টগার্ডের একটি উদ্ধারকারী দল রওনা দেয় স্পিডবোটিকে খুঁজতে। তারা স্পিডবোটের গতিপথ, যাত্রার সময়, ঝড়ের গতি ও প্রকৃতিসহ সবকিছু বিবেচনা করে খুঁজতে থাকেন এবং একসময় সফলও হন।

স্পিডবোট খুঁজে নিয়ে পথ দেখিয়ে নিরাপদে উপকূলে নিয়ে আসে কোস্টগার্ড দল। স্পিডবোটের চালক ও সকল যাত্রী সুস্থ আছেন।

আলোকিত চট্টগ্রাম

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm