জোড়া লেগেছে রামদা’র কোপে বিচ্ছিন্ন পুলিশের সেই হাতের কব্জি

লোহাগাড়ায় আসামির রামদা’র দায়ের কোপে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাওয়া কব্জি জোড়া লাগানো হয়েছে কনস্টেবল জনি খানের হাতে।

সোমবার (১৬ মে) বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জনি খানের সঙ্গে থাকা লোহাগাড়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) ভক্ত চন্দ দত্ত।

তিনি জানান, রোববার (১৫ মে) বিকেল ৫টায় ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার অস্ত্রোপচার শুরু হয়। শেষ হয় দিবাগত রাত আড়াইটার দিকে।

চিকিৎসকের বরাতে ভক্ত চন্দ দত্ত বলেন, ঢাকার একটি বেসরকারি হাসপাতালে জনি খানের চিকিৎসা চলছে। তিনি বর্তমানে ভালো আছেন। পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথাও বলেছেন। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, অস্ত্রোপচারটি সফলভাবে সম্পন্ন হয়েছে।

Yakub Group

আরও পড়ুন: রামদা’র কোপে পুলিশের হাতের কব্জি কেটে পালাল আসামি

চট্টগ্রাম জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সাতকানিয়া সার্কেল) মো. শিবলী নোমান বলেন, জনি খানের ওপর হামলার ঘটনায় লোহাগাড়া থানায় একটি মামলা হয়েছে। হামলার সঙ্গে জড়িত কবির আহম্মদের স্ত্রী রুবি বেগমকে বান্দরবান সীমান্ত এলাকা থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। কবির আহম্মদকে গ্রেপ্তারে পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে।

এর আগে রোববার সকালে চট্টগ্রামের লোহাগাড়া উপজেলায় অভিযানে গিয়ে আসামির দায়ের কোপে হাতের কব্জি বিচ্ছিন্ন হয় কনস্টেবল জনি খানের। একই ঘটনায় আরও এক কনস্টেবল আহত হন। ঘটনার পর পালিয়ে যান আসামি কবির আহম্মদ।

এসআই/আলোকিত চট্টগ্রাম

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm