জুয়েলারি দোকানে ডাকাতি করে সন্দ্বীপে লুকিয়ে ছিল ৩ ডাকাত

সীতাকুণ্ডে এক জুয়েলারি দোকানে ডাকাতির ঘটনায় জড়িত ৩ জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

বুধবার (১২ জানুয়ারি) রাতে সন্দ্বীপের মগধরা গ্রামের আবদুর রহমান ডাক্তারের বাড়ি থেকে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এদিকে বৃহস্পতিবার (১৩ জানুয়ারি) গ্রেপ্তারদের আদালতের মাধ্যমে কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

গ্রেপ্তাররা হলেন- সন্দ্বীপ উপজেলার কালাপানিয়া এলাকার মো. মনির উদ্দিনের ছেলে মো. রুবেল (৩১), একই থানার সন্তোষপুর গ্রামের মৃত এজাহারুল হকের ছেলে রাশেদ( ৪২) ও পশ্চিম বাউরিয়া এলাকার মো. রবিউল ইসলামের ছেলে মো. জুয়েল (৩৩)।

আরও পড়ুন: ডাকাতির আগেই ধরা ৩ যুবক, অস্ত্রসহ উদ্ধার প্রাইভেট অটোরিকশা

থানা সূত্রে জানা যায়, গত ৫ ডিসেম্বর সৈয়দপুর ইউনিয়নের মহানগর বাজারের জাকির হোসেন মার্কেটের স্বর্ণা জুয়েলার্স নামের এক দোকানে ডাকাতির ঘটনা ঘটে। এ সময় ডাকাতরা ৬ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ৫০ হাজার টাকা এবং পাশের একটি স্টুডিও দোকানের ট্যাব নিয়ে যায়।

ঘটনার পর স্বর্ণা জুয়েলার্সের স্বত্বাধিকারী সুজন দে বিষয়টি সীতাকুণ্ড থানাকে জানালে তদন্ত নামে পুলিশ। শেষে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় বুধবার রাতে সন্দ্বীপের মগধরা গ্রামের আবদুর রহমান ডাক্তারের বাড়ি থেকে তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

যোগাযোগ করা হলে সীতাকুণ্ড থানার ওসি (তদন্ত) সুমন বণিক আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, গ্রেপ্তার তিনজন জাকির হোসেন মার্কেটের স্বর্ণা জুয়েলার্স এবং একটি স্টুডিও দোকানের জিনিসপত্র চুরি করে পালিয়ে যায়। পরে প্রযুক্তির সহায়তায় আমরা ঘটনার সঙ্গে জড়িত তিনজনকে গ্রেপ্তার করে আদালতে পাঠিয়ে দিই।

সালাউদ্দিন/আরবি

আপনার মন্তব্য লিখুন

আপনার ইমেইল ঠিকানা প্রকাশিত হবে না।

ksrm