দুই যাত্রী জাপটে ধরল যুবককে, টাকা—মোবাইল নিয়ে ফেলে দিল চলন্ত অটোরিকশা থেকে

আনোয়ারায় মো. মোরশেদ (২৬) নামে এক অটোরিকশা যাত্রীর মোবাইল ও নগদ টাকা ছিনিয়ে নিয়েছে ছিনতাইকারীরা। এরপর তাঁকে মারধর করে ফেলে দিয়েছে চলন্ত অটোরিকশা থেকে। এতে ওই যুবক গুরুতর আহত হয়েছেন। বর্তমানে তিনি চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

শনিবার (১৬ এপ্রিল) রাত সাড়ে দশটায় উপজেলার বারখাইন ইউনিয়নের তৈলারদ্বীপ লাবিয়া কমিউনিটি সেন্টার এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে স্থানীয়রা আহত মোরশেদকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে নিয়ে যান। মোরশেদ বারখাইন ইউনিয়নের তৈলারদ্বীপ এলাকার নাজির আলী বাড়ির নুরুল ইসলামের ছেলে।

আরও পড়ুন: চোরের মা’র বড় গলা—চুরিও করল, নাক-মুখ ফাটিয়ে যুবককে পাঠাল হাসপাতালে

মোরশেদের চাচা মো. পারভেজ জানান, কেইপিজেডে চাকরি শেষে বাড়ি ফেরার উদ্দেশ্য মোরশেদ গাড়ির জন্য অপেক্ষা করছিলেন চাতরী চৌমুহনী বাজারে। এ সময়ে একটি অটোরিকশায় চারজন যাত্রীসহ গাড়িতে উঠে সে। গাড়ি কালাবিবি দীঘির মোড় এলে পেছনের সিটে বসা দুই যাত্রী হঠাৎ তাকে জাপটে ধরে। একপর্যায়ে ছুরির ভয় দেখিয়ে মোবাইল আর নগদ টাকা ছিনিয়ে নেয়। পরে সে চিৎকার শুরু করলে তাকে মারধর করে চলন্ত গাড়ি থেকে লাবিয়া কমিউনিটি সেন্টারের সামনে ফেলে দেয়। গাড়ি থেকে ফেলে দেওয়ায় সে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে চমেক হাসপাতালে ভর্তি করেন। বর্তমানে সে চমেক হাসপাতালের ২৬ নম্বর ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন। এ ঘটনায় থানায় অভিযোগ করা হবে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে আনোয়ারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম দিদারুল ইসলাম সিকদার আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, এরকম কোনো ঘটনার অভিযোগ পাইনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

ইমরান/আরবি

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm