ছাত্রীকে অপহরণ করে নিয়ে যাচ্ছিল যুবক, চিৎকার শুনে ধরল জনতা

চকরিয়ায় মাদরাসা যাওয়ার পথে অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে অপহরণ করতে গিয়েছিলেন সায়েদ (২৫) নামে এক যুবক। এ সময় স্থানীয় জনতা তাকে হাতেনাতে ধরে ফেলে। এরপর গণপিটুনি দিয়ে তুলে দেয় পুলিশের হাতে।

মঙ্গলবার ( ৯ জুলাই) সকাল সাড়ে ৯টার দিকে বদরখালী এমএস ফাজিল মাদরাসার সামনের সড়কে এ ঘটনা ঘটে।

ছাত্রীর অভিভাবক ও স্থানীয় লোকজন জানান, উপজেলার বদরখালী এমএস ফাজিল মাদরাসার অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে প্রতিনিয়ত মাদরাসায় যাওয়ার পথে উত্ত্যক্ত করতেন ৭ নম্বর ওয়ার্ড ভেরুয়াখালীপাড়ার মোজাম্মেল হক বলির ছেলে সায়েদ। আজ সকাল সাড়ে ৯টায় মাদরাসায় যাওয়ার পথে ওই ছাত্রীকে অপহরণ করে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করেন তিনি। এসময় ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন এগিয়ে এসে সায়েদকে আটক করে গণপিটুনি দেয়। পরে ৯৯৯-এ ফোন করলে চকরিয়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে সায়েদকে থানায় নিয়ে যায়।

আরও পড়ুন : যেভাবে অপহরণকারীর ডেরা থেকে ফিরে এল স্কুলছাত্র

এ বিষয়ে মাদরাসার অধ্যক্ষ সাঈদ আনোয়ার তারেক আলোকিত চট্টগ্রামকে বলেন, আজ সকাল সাড়ে ৯টার দিকে মাদরাসায় আসার পথে সায়েদ নামের বখাটে যুবক অষ্টম শ্রেণির এক ছাত্রীকে থাপ্পড় মেরে জোরপূর্বক অপহরণ করে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করেন। এসময় ছাত্রীর চিৎকারে স্থানীয় লোকজন ও শিক্ষার্থীরা এগিয়ে গিয়ে ওই যুবককে আটক করে। পরে ভুক্তভোগী ছাত্রী প্রথমে একটি দোকানে ও পরে আমার কক্ষে এসে আশ্রয় নেয়।

যোগাযোগ করা হলে চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শেখ মোহাম্মদ আলী বলেন, এ ঘটনায় ছাত্রীর বাবা বাদী হয়ে থানায় এজাহার দিয়েছেন। এটি মামলা হিসেবে রেকর্ডের পর আটক যুবককে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতে পাঠানো হবে।

এমকেডি/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!