ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুলের খুনের ২৬ বছর পর দায়মুক্ত ৭ আসামি

নগরের আন্দরকিল্লায় খুন হওয়া ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল আলম হত্যা মামলায় ২৬ বছর পর রায় ঘোষণা করেছেন আদালত। এতে চার্জশিটভুক্ত ৭ আসামিকে খালাস দেওয়া হয়।

বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) চট্টগ্রামের অতিরিক্ত মহানগর দায়রা জজ নার্গিস আক্তার এ রায় ঘোষণা করেন।

খালাসপ্রাপ্ত আসামিরা হলেন- মো. আব্দুল কুদ্দুস, মো. মামুন, মো. নুরুল আলম, মোসফেক, মো. আব্দুল মতিন, রানা ও আলমগীর | এদের মধ্যে মোসফেক মারা গেছেন।

আদালতের এপিপি উত্তম কুমার দত্ত বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, আদালতের রায়ে চার্জশিটভুক্ত ৭ অভিযুক্তকে খালাস দিয়েছেন আদালত। রাষ্ট্রপক্ষে ৮ জনের সাক্ষী দেওয়া হয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আদালত রায় ঘোষণা করেছেন। অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় তাদের খালাস দিয়েছেন আদালত। তবে আদেশের বিরুদ্ধে আপিল করার সুযোগ রয়েছে।

আদালত সূত্র জানা যায়, ১৯৯৬ সালের ৪ মার্চ আন্দরকিল্লা সিটি করপোরেশন ভবনের সামনে ছাত্রলীগ নেতা মাহমুদুল আলমকে হত্যা করা হয়। অভিযুক্তরা মাইক্রোবাসে করে ভারী অস্ত্র নিয়ে ঘটনাস্থলে এসে মাহমুদুলকে বুকে রক্তাক্ত জখম করে খুন করেন। এসময় তারা কাটা রাইফেলও সঙ্গে রাখেন। এ ঘটনায় একই বছরের ৯ মার্চ মাহমুদুল আলমের ছোট ভাই মোবাশ্বের আলম বাদী হয়ে কোতোয়ালী থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন।

Yakub Group

পরবর্তী বছরের ৩১ জানুয়ারি সাত আসামির বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন মামলা তদন্ত কর্মকর্তা এসআই শেখ নাসিম হাবিব। এরই ধারাবাহিকতায় ২০০৫ সালের ১০ আগস্ট আদালত আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জ গঠন করে বিচার শুরুর আদেশ দেন।

আরএস/এসআই

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm