‘ছাত্রলীগের কুলাঙ্গার’ বলল জাকারিয়া দস্তগীর, প্রতিবাদ করে হুমকি খেলেন ছাত্রলীগের নেত্রী

ফেসবুকে চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীরের বক্তব্যের প্রতিবাদ করায় বিপদে পড়েছেন ছাত্রলীগের এক নেত্রী। তাঁর নামে ছড়ানো হচ্ছে বিভিন্ন কুৎসিত কথা। আবার তাঁর স্বামীকে মারধরের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে। এ অবস্থায় থানায় জিডি (সাধারণ ডায়েরি) করেছেন ভুক্তভোগী ওই গৃহিণী। 

বুধবার (২৫ মে) নগরের সদরঘাট থানায় নিজের এবং পরিবারের নিরাপত্তা চেয়ে এ জিডি করেন তিনি।

আরও পড়ুন: চট্টগ্রামে ছাত্রলীগে হ-য-ব-র-ল, খুনের মামলার আসামি—অছাত্রদের দখলে কোতোয়ালী কমিটি

ছাত্রলীগ নেত্রী ফারজানা আক্তার মিশু সদরঘাট পশ্চিম মাদারবাড়ী ১ নম্বর গলি তম্বিয়া ভিলার বাসিন্দা। তিনি সরকারি সিটি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের সাবেক ছাত্রলীগ কর্মী এবং নগর ছাত্রলীগের উপগণযোগাযোগ ও উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক মো. মিজানুর রহমান মিজানের স্ত্রী।

Yakub Group

জানা যায়, বুধবার নিউমার্কেট এলাকায় এক সমাবেশে নগর ছাত্রলীগ সাধারণ সম্পাদক জাকারিয়া দস্তগীর বলেন, থানা, কলেজ, ওয়ার্ড ছাত্রলীগের প্রতি সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা রয়েছে। রাজপথে পাড়া-মহল্লায় কোনো জায়গায় ছাত্রলীগের কুলাঙ্গারদের বের হতে দিবেন না। 

তাঁর এমন বক্তব্যের পর ফারজানা একইদিন বিকেল ৫টার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এক স্ট্যাটাস লিখেন, চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক কীভাবে ছাত্রলীগকে কুলাঙ্গার বলে? এ স্ট্যাটাসের পর বিভিন্ন ব্যক্তি কমেন্ট করে তাঁকে এবং স্বামীকে মারধরসহ নানা হুমকি-ধমকি দিতে থাকেন। 

আরও পড়ুন: ১১৫ নেতার ‘অনাস্থা’ চট্টগ্রামে নগর ছাত্রলীগ সভাপতি—সম্পাদকের ‘বিতর্কিত’ কর্মকাণ্ডে

জিডিতে ফারজানা আক্তার মিশু উল্লেখ করেন, আমার ফেসবুক পোস্টের কমেন্টে সাবিত আনাম সামির নামে একজন লিখেন, আমার স্বামী মো. মিজানুর রহমান মিজানকে মারলে আমাকে দমানো যাবে। এমডি মেহেদী হাসান আমার স্বামীকে অশ্লীল ভাষায় গালমন্দসহ হুমকি দেন। এসএম মিসবাহ্ নামের একজন আমার নামে আজেবাজে কথাবার্তাসহ তার আইডি থেকে নানা ধরনের অশ্লীল ভাষায় পোস্ট দেন। এছাড়া জাবেদ হাসান মিনহাজ নামের একজন আজেবাজে কথা লেখেন। এমন হুমকি-ধমকিতে নিজের এবং পরিবারের সুরক্ষায় সদরঘাট থানায় এসব অজ্ঞাত ব্যক্তির বিরুদ্ধে জিডি করেছেন।

আরএস/আরবি

যখনই ঘটনা, তখনই আপডেট পেতে, গ্রাহক হয়ে যান এখনই!

মন্তব্য নেওয়া বন্ধ।

ksrm